বাংলা ট্রিবিউন
বিদেশি চাপ অতিক্রম করার সাহস ও সামর্থ সরকারের আছে: ওবায়দুল কাদের

বিদেশি চাপ অতিক্রম করার সাহস ও সামর্থ সরকারের আছে: ওবায়দুল কাদের

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয়ের পর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নতুন সরকার গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। এখন এই সরকারের সামনে নানা ধরনের চ্যালেঞ্জ রয়েছে উল্লেখ করে দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমাদের সামনে চ্যালেঞ্জ আসবে আমরা জানি। এখন বিদেশিদের নানান ধরনের চাপ আসবে... দেশের অর্থনীতিকে বিপন্ন করার ষড়যন্ত্রও আছে। এগুলোকে ভয় পেলে চলবে না। সাহস রাখতে হবে।’ দেশি-বিদেশি চাপ ও ষড়যন্ত্র অতিক্রম করার সাহস ও সামর্থ বর্তমান সরকারের আছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। রবিবার (১৪ জানুয়ারি) নতুন মন্ত্রিসভায় চতুর্থবারের মতো সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়ার পর প্রথম দিন সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে এসে সাংবাদিকদের দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশি-বিদেশি চাপের বিষয়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বারবার বলেছেন। চাপ বিদেশ থেকেও আছে, দেশেও আছে। কিন্তু আমরা অতিক্রম করার ক্ষমতা, সাহস ও সামর্থ রাখি। আমাদের শক্তির উৎস বাংলাদেশের জনগণ, আমাদের সম্পর্ক মাটি আর মানুষের সঙ্গে। মাটি আর মানুষের সঙ্গে যে দলের, যে সরকারের সম্পর্ক, সেই দল কোনও দেশি-বিদেশি চাপ বা কোনও চাপের কাছেই নতি স্বীকার করে না।‘ আওয়ামী লীগ নির্বাচনপূর্ব পরিস্থিতি অতিক্রম করে এসেছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নির্বাচন তো হয়েই গেছে। অনেকেই বলেছিলেন, এই নির্বাচন আমরা করতে পারবো না। তাদের সেই স্বপ্ন দুঃসপ্ন হয়ে গেছে। আমাদের স্বপ্ন আমরা বাস্তবায়িত করেছি। এখন আমাদের ওপর চাপ আসবে আমরা জানি। বিদেশি চাপ আসবে... নানান ধরনের, আমাদের অর্থনীতিকে বিপন্ন করার ষড়যন্ত্রও আছে। এগুলো অতিক্রম করতে হবে এগুলোকে ভয় পেলে চলবে না, সাহস রাখতে হবে।’ সম্প্রতি দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির জন্য নিম্ন ও স্বল্প আয়ের মানুষের কষ্ট হচ্ছে স্বীকার করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা লাঘব করা দরকার। প্রধানমন্ত্রী নিজেও বলেছেন— এখন আমাদের সর্বাত্মক চেষ্টা চালাতে হবে দ্রব্যমূল্য যেন ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকে।’ সরকারবিরোধী পক্ষের প্রতি বার্তা দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এ দেশটা আমাদের সবার, ক্ষমতায় আছে বলে শুধু আওয়ামী লীগের না। সবারই শুভ বোধ হওয়া দরকার যে, ষড়যন্ত্র দেশকে সমৃদ্ধ করার কোনও পথ নয়। দেশটাকে ভালোবাসতে হবে, সত্যিকার গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরে আসতে হবে, দেশের উন্নয়ন অর্জন, সবার উন্নয়ন অর্জন। তাহলেই সবার মঙ্গল।‘ তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে হওয়া উন্নয়ন দেশেরই সম্পদ, সব জনগণের সম্পদ। শুধু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই নন, বিরোধী দলের নেতাকর্মীরাও এই উন্নয়ন-অর্জনের সুফল ভোগ করবেন। কারণ তারাও এ দেশের নাগরিক।’ তাই সবাইকে দেশের উন্নয়নে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।
Published on: 2024-01-14 08:39:12.456575 +0100 CET

------------ Previous News ------------