ইত্তেফাক
‘জনগণের ওপর যাদের আস্থা নেই, তারাই নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে’

‘জনগণের ওপর যাদের আস্থা নেই, তারাই নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে’

*প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভোটের মাধ্যমে সরকার পরিবর্তন হবে। যে সমস্ত দল নির্বাচনে আসার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের সাধুবাদ জানাই, ধন্যবাদ জানাই। আর যাদের জনগণের ওপর আস্থা নেই, বিশ্বাস নেই, দল হিসেবে সুসংগঠিত না, তারাই নির্বাচন বানচালের একটা চেষ্টা করে যাচ্ছে। অথচ একটা নির্বাচন বানচাল করলে দেশের অনেক বড় ক্ষতি হয়। তাই ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড করে যারা নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে তাদের প্রতিহত করতে হবে।* শনিবার (১৮ নভেম্বর) সকাল ১০টায় ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র বিতরণ ও জমাদান কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের মধ্যে দিয়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে দলটি। সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যান প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে শেখ হাসিনার পক্ষে মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ করেন দলটির উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য কাজী আকরাম উদ্দীন আহমদ। গোপালগঞ্জ-৩ আসনের (টুঙ্গিপাড়া-কোটালীপাড়া উপজেলা) জন্য শেখ হাসিনার পক্ষে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ করা হয়। শেখ হাসিনার মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সময় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় ও গোপালগঞ্জ আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। শেখ হাসিনা বলেন, নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করতে অগ্নিসন্ত্রাস করলে এর পরিণতি ভালো হবে না। যারা করবে আমাদের দেশের মানুষই তাদের শাস্তি দেবে। দেশের মানুষকে আমি সেই আহ্বানটাই জানাচ্ছি। আমাদের কষ্টের অর্জিত গণতান্ত্রিক ধারাকে কেউ যেন ব্যাহত করতে না পারে, এটাই আমার আহ্বান। তিনি বলেন, দেশবাসী ভোট দিয়ে তাদের প্রিয় মানুষকে নির্বাচিত করবে। যারা সংসদে বসবে, আইন পাস করবে, রাষ্ট্র পরিচালনা করবে। কাজে এটা হচ্ছে জনগণের অধিকার। জনগণের অধিকার যারা কাটতে চেষ্টা করবে, জনগণের অধিকার যারা কেড়ে নিতে অগ্নিসন্ত্রাস করবে, জনগণই তাদের প্রতিরোধ করবে। আওয়ামী লীগ এ দেশে ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, বহু কষ্ট করে দেশে ভোটের অধিকার আমরা প্রতিষ্ঠা করেছি। ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর এটা আমরা করতে পেরেছি। মানুষ এখন স্বাচ্ছন্দ্যে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারছে। এটা অব্যহত রাখতে হবে। আর ভোট নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া হবে না। এসময় যারা ধ্বংসাত্নক কাজ করছে তাদের প্রতিহত করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ২০১৩-১৪ সালে আমরা দেখেছি বহু মানুষ আগুনে পুড়েছে। এখন আবার আগুন সন্ত্রাস শুরু হয়েছে। এটা কোন ধরণের রাজনীতি আমি বুঝি না। যাদের মানুষের ওপর আস্থা নেই, বিশ্বাস নেই তারা নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করে যাচ্ছে। এভাবে নির্বাচন বানচাল করে গণতন্ত্রকে ব্যহত করতে চায় বিএনপি-জামায়াত। আমি দেশের মানুষের প্রতি আহ্বান জানাই, যারা ধ্বংসাত্নক কাজ করছে তাদের প্রতিহত করতে হবে।
Published on: 2023-11-18 07:09:42.422265 +0100 CET