ইত্তেফাক
‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন লাইনচ্যুত দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা বলা যাচ্ছে না’

‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন লাইনচ্যুত দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা বলা যাচ্ছে না’

*ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুতের ঘটনা ঘটেছে। এতে আপলাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকলেও স্বাভাবিক রয়েছে ডাউন লাইনের ট্রেন চলাচল। এ ঘটনায় ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলামকে প্রধান করে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত উদ্ধারকারী ট্রেন এখনো ঘটনাস্থলে পৌছায়নি।* রোববার (১৯ নভেম্বর) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কলেজপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মো. জসীম উদ্দিন বলেন, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী মালবাহী কনটেইনার ট্রেনটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনের পূর্ব দিকের আউটারে কলেজপাড়া এলাকায় পৌঁছালে ট্রেনের ৩১ নম্বর বগির পেছনের চারটি চাকা লাইনচ্যুত হয়। এতে রেললাইনের পাত বাঁকা হয়ে ব্যাপক স্লিপার ভেঙে যায়। এতে প্রায় আধা কিলোমিটার রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রেলের দুটি লাইন ট্র্যাক থেকে সরে বেঁকে গেছে। তিনি বলেন, রেলওয়ের কর্মীরা ফিশপ্লেট ও স্লিপার ক্লিপ কুড়িয়ে লেভেল ক্রসিংয়ের পাশের কক্ষে নিয়ে জড়ো করছেন। ৩০০ থেকে ৩৫০টি স্লিপার ক্লিপ সরে গেছে। এটি দুর্ঘটনা নাকি নাশকতা বলা যাচ্ছে না। সংশ্লিষ্টরা এ বিষয়ে তদন্ত করলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় আপলাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এখন ডাউনলাইন দিয়ে সব ট্রেন চলাচল করবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত রেললাইন মেরামতের কাজ শেষ না হওয়ায় আখাউড়া থেকে রিলিফ ট্রেন এসে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়নি। আখাউড়া রেল জংশনের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী (রেলওয়ে) মেহেদী হাসান বলেন, ৬০টি স্লিপার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মালবাহী কন্টেইনার ট্রেন লাইনচ্যুতের ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা মো. সাজিদুল ইসলামকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। বিকাল ৩টার দিকে তদন্ত কমিটির সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসেন। তদন্ত কমিটির প্রধান মো. সাজিদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।
Published on: 2023-11-19 12:49:51.707248 +0100 CET