ইত্তেফাক
মনোনয়ন পেতে শেষ মুহূর্তের দৌড়ঝাঁপ

মনোনয়ন পেতে শেষ মুহূর্তের দৌড়ঝাঁপ

*দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। চলছে শেষ মুহূর্তের দৌড়ঝাঁপ। লবিং-তদবিরে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। প্রভাবশালী নেতাদের বাসা-বাড়িতে এখন রীতিমতো উপচে পড়া ভিড়। গণভবন, ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়, সংসদীয় বোর্ডের সদস্যদের বাসা-অফিসে ছুটছেন তারা। আওয়ামী লীগের কয়েক জন গুরুত্বপূর্ণ নেতাকে ‘তুষ্ট’ করার জন্য হেন চেষ্টা নেই, যা তারা করছেন না। দলের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা যেখানে যাচ্ছেন প্রার্থীরা যাচ্ছেন পিছু পিছু। যেভাবেই হোক—চাই মনোনয়ন।* আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ৩ হাজার ৩৬২ জন। দল মনোনীত একক প্রার্থী চূড়ান্ত করতে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এই বৈঠক হবে। এতে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি সংসদীয় বোর্ডের চেয়ারম্যান। বোর্ডের সদস্যরা হলেন আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ, কাজী জাফর উল্যাহ, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, ওবায়দুল কাদের, রাশিদুল আলম ও ডা. দীপু মনি। নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাসহ সাধারণ কর্মী-সমর্থকদের নজর এখন দলটির সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের দিকে। অতীতের মতোই সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিভাগওয়ারি আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত করবে। আজ রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের সংসদীয় আসনগুলোর মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হতে পারে বলে জানা গেছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী বাছাই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল গত ২১ জুন গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে। সেদিন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, ‘শত ফুল ফুটতে দিন। যে ফুলটি সবচেয়ে সুন্দর সেটি আমি বেছে নেব।’ জানা গেছে, একাধিক জরিপ রিপোর্ট ও মনোনয়নপ্রত্যাশীদের বায়োডাটা যাচাই করে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে। দলীয় প্রার্থী ঠিক করার প্রক্রিয়া সম্পর্কে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের মনোনয়ন প্রক্রিয়া গণতান্ত্রিক। অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র আমরা অনুসরণ করি। জনমত জরিপ, সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর নিজস্ব একটা সেল আছে। কার কী অবস্থা সেই সেলের মাধ্যমেও তথ্য আসে। সবগুলো মিলিয়ে যার নম্বর বেশি তাকেই মনোনয়নের জন্য বিবেচনা করা হয়। সব বিবেচনা করেই গ্রহণযোগ্য প্রার্থীকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে।’ এদিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাজীপুর-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। মঙ্গলবার তার পক্ষে মনোনয়ন ফরম জমা দেওয়া হয়। গাজীপুর-২ আসনে আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল। তিনি যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন। একই আসন থেকে এবারও দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন জাহিদ আহসান রাসেল।
Published on: 2023-11-23 01:06:38.703932 +0100 CET