ইত্তেফাক
মুদ্রানীতি প্রণয়নে মতামত চেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক

মুদ্রানীতি প্রণয়নে মতামত চেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক

*চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরের দ্বিতীয় ভাগের জন্য মুদ্রানীতি প্রণয়ন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ লক্ষ্যে আগ্রহী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে মতামত ও পরামর্শ চেয়েছে দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।* সে জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের মুদ্রানীতি বিভাগের পরিচালক মো. আব্দুল কাইয়ুমের ইমেইল ঠিকানা দেওয়া    হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। আগ্রহী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান [email protected] ev gm.mpd@bb. org.bd এই ঠিকানায় ইমেইল পাঠিয়ে মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন। ২০২৪ সালের ৭ জানুয়ারির মধ্যে মতামত দিতে বলা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এর আগেও মুদ্রানীতি বিষয়ে আগ্রহী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মতামত বা পরামর্শ চেয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অন্যতম প্রধান কাজ মুদ্রা সরবরাহ। তবে বাজারে মুদ্রা সরবরাহ বেশি হয়ে গেলে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মূল অস্ত্র হচ্ছে মুদ্রানীতির কার্যকর ব্যবহার। সাধারণত সুদের হার বাড়িয়ে বা কমিয়ে বাজারে মুদ্রা সরবরাহ নিয়ন্ত্রণ করে মূল্যস্ফীতি সামাল দেওয়া হয়। এ কাজ করে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুদ্রানীতি বিভাগ। প্রতিটি দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিভাগ হচ্ছে এটি, যদিও দেশে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে মুদ্রানীতিকে হাতিয়ার হিসেবে খুব একটা  কার্যকর নয় বলে বিশেষজ্ঞদের অভিযোগ রয়েছে। গত অক্টোবর মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক মুদ্রানীতি প্রণয়ন কমিটি পুনর্গঠন করেছে। আগে শুধু কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা এই কমিটিতে ছিলেন, এবারের কমিটিতে বাইরে থেকে আরও তিন জনকে রাখা হয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, মুদ্রানীতি প্রণয়ন কমিটিতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে গভর্নরসহ মুদ্রানীতি বিভাগের ডেপুটি গভর্নর, প্রধান অর্থনীতিবিদ ও নির্বাহী পরিচালক থাকছেন। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বাইরে থেকে কমিটির সদস্য হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) মহাপরিচালক। তাদের পাশাপাশি বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) ভাইস চেয়ারম্যান সাদিক আহমেদ অথবা এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেনকে কমিটিতে রাখার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ। এ দুজনের মধ্যে যাকে পাওয়া যাবে, তাকে মুদ্রানীতি প্রণয়ন কমিটির বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানা গেছে।
Published on: 2023-12-12 20:41:56.011224 +0100 CET