ইত্তেফাক
আমি জানি আমারটা আছে, আসন ভাগাভাগি নিয়ে নজিবুল বশর

আমি জানি আমারটা আছে, আসন ভাগাভাগি নিয়ে নজিবুল বশর

*আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪-দলীয় জোটের শরিকদের সাতটি আসন ছেড়ে দিয়েছে আওয়ামী লীগ। তবে সে তালিকায় নেই তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটাই চূড়ান্ত নয়। আমরা জানি, আমরা আছি।’* শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। তরিকত ফেডারেশনের জন্য কোনো আসন ছাড়ের ঘোষণা না থাকলেও নজিবুল বশর বলেন, ‘৪ ডিসেম্বর আমরা গণভবনে যাই। আমাকে ৪ ডিসেম্বরই বলে দেওয়া হয়েছিল। সেদিন ওবায়দুল কাদের সাহেব প্রকাশ্যে কয়েকজনের নাম বলে দিয়েছিলেন। বাকিগুলো আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আমি জানি আমারটা আছে।’ আপাতত জোটের সাতটি আসনের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। তবে এটি চূড়ান্ত নয় জানিয়ে তিনি বলেন, ‘৪ ডিসেম্বর জোটের সবার সঙ্গে বৈঠক হয়। সেখানে তরীকত ফেডারেশনকে অন্তত দুটি আসন দেওয়ার কথা হয়। সভায় তাৎক্ষণিক ১৪–দলীয় জোটের রাশেদ খান মেনন, ফজলে হোসেন বাদশা, হাসানুল হক ইনু, আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ও আমার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।’ ‘প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, ওই দুটি আসনই আমাদের দেন। সাতটা কৌশলের কারণে দিয়েছেন। আমারটা কেন দেননি, সেটা তারাই বলতে পারবেন’ বলেন তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান। এদিকে নজিবুল বশরের চট্টগ্রাম-২ আসনে নৌকার প্রার্থী করা হয়েছে ওই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রফিকুল আনোয়ারের মেয়ে খাদিজাতুল আনোয়ারকে। এছাড়াও প্রার্থী হয়েছেন নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীর ভাতিজা ও সম্প্রতি নিবন্ধন পাওয়া বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ সাইফুদ্দিন আহমদ মাইজভান্ডারী। সূত্রে জানা গেছে, আসনটিতে সাইফুদ্দিন আহমদকে ছাড় দিতে পারে আওয়ামী লীগ। বিষয়টিকে রাজনীতির জন্য ‘ভয়ংকর বার্তা’ হবে উল্লেখ করে নজিবুল বশর বলেন, তিন মাস আগে নিবন্ধন পেয়ে যদি কেউ মনোনয়ন পায়, তাহলে রাজনীতির অবস্থান কোথায় যাবে? সুপ্রিম পার্টি তো জোটে নাই। সুপ্রিম পার্টির বিষয়ে জোটের সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু কিছু বলেননি।
Published on: 2023-12-15 11:26:40.743475 +0100 CET