ইত্তেফাক
বান্দরবানে যৌথ অভিযান পরিচালনা হবে: ডিআইজি

বান্দরবানে যৌথ অভিযান পরিচালনা হবে: ডিআইজি

লুট হওয়া অস্ত্র উদ্ধার ও অপরাধীদের দমনে বান্দরবানে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে যৌথ অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের পুলিশের উপমহাপরিদর্শক নূরে আলম মিনা। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে থানচির লুট হওয়া দুটি‌ ব্যাংকের শাখা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। ডিআইজি নূরে আলম মিনা বলেন, রুমা ও থানচিতে ব্যাংকের টাকা লুট, পুলিশের ওপর হামলাসহ নানা অভিযোগে ৮ থেকে ৯টি মামলা হতে পারে। মামলার যাবতীয় প্রস্তুতি চলছে। ডিআইজি বলেন, ফান্ড সংগ্রহের জন্য দুটি ব্যাংকে হামলা হয়েছে। রুমায় বেশি টাকা রয়েছে, তাই ভল্ট ভেঙে নেওয়ার চেষ্টা করেছে। আর থানচিতে ঘটনার দিন হাটবার থাকায় ব্যাংকে লেনদেন বেশি হবে। তাই সেখানে ডাকাতি হয়েছে। পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, অপহৃত ব্যাংক কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন সুস্থ আছেন। শিগগিরই তাকেকে উদ্ধার করা হবে। সেইসঙ্গে লুট হওয়া অস্ত্র অবশ্যই উদ্ধার করা হবে। এর আগে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় রুমা উপজেলার সোনালী ব্যাংক লুট করার চেষ্টা করে সশস্ত্র হামলাকারীরা। তবে ব্যাংক লুট করতে না পেরে মসজিদ থেকে ম্যানেজার নেজাম উদ্দিনকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরদিন দুপুরে থানচির সোনালী ও কৃষি ব্যাংকে হামলা হয়। এ সময় সোনালী ব্যাংক থেকে নগদ ১৫ লাখ টাকা ও কৃষি ব্যাংকে গ্রাহকের আড়াই লাখ টাকা ও বেশকিছু মোবাইল ফোন নিয়ে যায় তারা। নিরাপত্তারক্ষী ও পুলিশ প্রতিহতে এগিয়ে এলে ডাকাতরা ফাঁকা গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায়।
Published on: 2024-04-04 14:07:17.348719 +0200 CEST