ইত্তেফাক
মধ্যরাতে জ্বলছে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প

মধ্যরাতে জ্বলছে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প

*রোববার (৭ জানুয়ারি) ভোরের সূর্য উঁকি দিলেই আট থেকে শুরু হবে দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। সারাদেশ এ নিয়ে ব্যস্ত। এরই মাঝে শনিবার (৬ জানুয়ারি) দিনগত মাঝরাতে কক্সবাজারের উখিয়ায় একটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভয়াবহ আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। গভীর রাতে ক্যাম্পের আকাশে জ্বলন্ত আগুনের শিখা প্রজ্বলিত হচ্ছে কেবল। উখিয়ার কুতুপালং ৫ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এ ব্লকের সাব ব্লক এ/৮ এ ঘটনা ঘটেছে। রাত ২টা পর্যন্তও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি বলে জানিয়েছে ক্যাম্পে।* অবস্থান করা রোহিঙ্গারা। এসময় পর্যম্ত অন্তত ৪০-৫০টি রোহিঙ্গা বসতি পুড়ে গেছে বলে ধারণা তাদের। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার নিঃস্ব হচ্ছে বলে জানা গেলেও, হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে রয়েছে জানিয়েছেন ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ১৪ এপিবিএন অধিনায়ক (অতিরিক্ত ডিআইজি) মো. ইকবাল। তিনি বলেন, আগুনে এ পর্যন্ত (রাত ২টা পর্যন্ত) ৪০-৫০টি ঘর পুড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কেবল বাড়তে থাকা আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ইউনিট প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আগুন কীভাবে ছড়াল খোঁজ নিচ্ছি আমরা। অগ্নিকাণ্ডটি পরিকল্পিত নাকি দুর্ঘটনা সেই রহস্য  তৎপরতা অব্যাহত আছে। ঘটনাস্থলে এপিবিএন সদস্যরা অবস্থান ও কাজ করছে। উল্লেখ্য, গেলো বছরের ৩১ ডিসেম্বর একিভাবে আরও একটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৪০-৫০ টি রোহিঙ্গা বসতি পুড়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অন্তত অর্ধশতাধিক ঘর। এর আগে ২০২৩ সালের ৫ মার্চ একই ক্যাম্পের অন্য একটি ব্লকে আগুন দিয়েছিল দুর্বৃত্তরা। ওই অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যায় দুই হাজার ২০০ ঘর। ক্ষতিগ্রস্ত হয় ১৫ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা। এর আগে ২০২১ সালের ২২ মার্চ তিনটি ক্যাম্পে এক সঙ্গে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে ১১ জন নিহত ও ৫ শতাধিক আহত হন। পুড়ে গেছিল ৯ হাজারের বেশি ঘর।
Published on: 2024-01-06 21:49:46.350795 +0100 CET