ইত্তেফাক
জিম্মি জাহাজের ওপর নজর রাখছে ‘অপারেশন আটলান্টা’

জিম্মি জাহাজের ওপর নজর রাখছে ‘অপারেশন আটলান্টা’

*সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ’র ওপর একটি ইউরোপীয় জাহাজ থেকে নজর রাখার কথা জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন নেভাল ফোর্স (ইইউএনএভিএফওআর), যাদের কার্যক্রম ‘অপারেশন আটলান্টা’ হিসেবে পরিচিত।* পূর্ব আফ্রিকা উপকূলে জলদস্যুতা নির্মূলে কাজ করে যাওয়া এই ইউরোপীয় নৌ-নিরাপত্তা বাহিনীটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অপারেশন আটলান্টার অংশ হিসেবে তারা সোমালিয়া উপকূলে একটি জাহাজ মোতায়েন করেছে। জাহাজটি বাংলাদেশি কার্গো জাহাজ আবদুল্লাহকে অনুসরণ করছে। খবর এবিসি নিউজ’র। এক প্রতিবেদনে এবিসি নিউজ জানায়, সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসু থেকে ১১০০ কিলোমিটার দূরে এমভি আবদুল্লাহ ও এর ২৩ নাবিককে জিম্মির খবর মঙ্গলবার প্রথম জানতে পারে ব্রিটিশ সামরিক বাহিনী। আফ্রিকার দেশ মোজাম্বিক থেকে কয়লা নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত যাওয়ার পথে জলদুস্যদের কবলে পড়ে কবির গ্রুপের মালিকানাধীন এসআর শিপিংয়ের জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ। জাহাজে অন্তত ৬০ জন জলদস্যু অবস্থান নিয়েছে। জাহাজটি বর্তমানে সোমালিয়ার কাছাকাছি কোনো স্থানে নোঙর করা অবস্থায় রয়েছে। তবে জলদস্যুদের হাতে জিম্মি নাবিকরা মোটামুটি সুস্থ আছেন। বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক বৈঠক শেষে এ তথ্য জানান মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব রিয়ার অ্যাডমিরাল (অব.) খুরশেদ আলম। তিনি আরও জানান, জলদস্যুরা এখনো কোনো মুক্তিপণ চায়নি। মুক্তিপণের ব্যাপারে কোনো যোগাযোগও করেনি। তবে জাহাজ ফেরত আনাই সরকারের প্রথম লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য থেকে সরকার বিচ্যুত হবে না।
Published on: 2024-03-14 17:46:01.328584 +0100 CET