ইত্তেফাক
৭১৪ শিশুর কণ্ঠে ধ্বনিত হলো বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

৭১৪ শিশুর কণ্ঠে ধ্বনিত হলো বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

*গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় একসঙ্গে ৭১৪ শিশুর কণ্ঠে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের সেই ঐতিহাসিক ভাষণ ধ্বনিত হয়েছে।* বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) সাড়ে ৯টায় সকালে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলা হেলিপ্যাড চত্বরে এ ভাষণের আয়োজন করা হয়। উপজেলার ১০২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৭১৪  শিশু শিক্ষার্থীর কণ্ঠে উচ্চারিত হয় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ১৯ মিনিটের সেই কালজয়ী ঐতিহাসিক ভাষণ। বঙ্গবন্ধু সাজে সজ্জিত শিশুদের কণ্ঠে ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম’ উচ্চারিত হওয়ার পর হেলিপ্যাড মাঠ যেন পরিণত হয় রেসকোর্স ময়দানে। আর ইতিহাস যেন ক্ষণিকের জন্য ফিরে যায় ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চের সেই প্রদীপ্তময়ক্ষণে। তাদের ভাষণে মুগ্ধ হন অতিথি, সরকারি কর্মকর্তা, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীসহ উপস্থিত সর্বস্তরের মানুষ। এদিন বঙ্গবন্ধুর উনিশ মিনিটের সেই ভাষণ পুরোটাই মুখস্থ করে এসেছিল ১০২ টি শিক্ষার প্রতিষ্ঠানের ৭১৪ শিশু শিক্ষার্থী। শিশুদের ভাষণ শেষে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের এক হাজার ১০৮ শব্দ সংবলিত বেলুন প্ল্যাকার্ডের সঙ্গে ওড়ানো হয়। পরে ৭ মার্চের ভাষণের শব্দমালা নিয়ে শব্দ শোভাযাত্রা নামের ব্যানারে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রটি টুঙ্গিপাড়ার বিভিন্ন সড়ক ঘুরে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে গিয়ে শেষ হয়। পরে শিশু শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়। টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মঈনুল হক বলেন, বঙ্গবন্ধু হৃদয়ে উৎসারিত ১ হাজার ১০৮ শব্দমালার সুনিপুণ বুনন বাঙালি জাতিকে দিয়েছে স্বাধীনতা মাতৃভূমি ও অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার বাংলাদেশ। তাই কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, দেশপ্রেম ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত করতে ৭ ই মার্চের ভাষণ তাদেরকে আত্মস্থ করানো হয়েছে।
Published on: 2024-03-07 16:03:09.955105 +0100 CET