যায়যায়দিন
ভ্রাম্যমাণ ফিলিং স্টেশনে ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশঙ্কা

ভ্রাম্যমাণ ফিলিং স্টেশনে ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশঙ্কা

নিয়মনীতির কোন তোয়াক্কা না করে ঢাকার কেরানীগঞ্জে কার্গো ট্রাকে ভ্রাম্যমাণ ফিলিং স্টেশন বানিয়ে অবৈধভাবে বিক্রি হচ্ছে রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস বা সিএনজি। কেরানীগঞ্জ উপজেলার কালিন্দী-রোহিতপুরের সৈয়দপুর অন্তত ৮টি পয়েন্টে ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্যবসা চলছে। এসব সিএনজি স্টেশনে প্রতিদিন ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে কাভার্ড ভ্যানে থাকা গ্যাস সিলিন্ডারের দ্বারা বিভিন্ন যানবাহনে পাইপের মাধ্যমে গ্যাস দেয়া হচ্ছে। এতে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তাদের। ভ্রাম্যমান এসব সিএনজি ষ্টেশনের কোনো প্রকার অনুমতি নেই জানিয়ে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় সচেতন মহল। স্থানীয় বাসিন্দা বশির উদ্দিন জানান, গত ১০ অক্টোবর, মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার কালিন্দী আমিরাবাগ এলাকায় স্বদেশ গ্লোরী সিএনজি ফিলিং স্টেশন বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে রনি আহমেদ(৪০) নামে একজন নিহত ও পথচারী শহিদুল ইসলাম (২৫) আসিফ (২৪) আহত হয়। আহতদের ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে আসা আব্দুর রহিম জানান, সন্ধ্যার দিকে মুহূর্তে ফিলিং স্টেশনে নজেল (পাইপ) বিকট শব্দ বিস্ফোরণ হয়। পরে সেখানে গিয়ে আহত অবস্থায় তাদের তিনজনকে দেখতে পান তিনি। তিনি আরও জানান, তাদের মধ্যে দুজনেরই মাথায় ও একজনে পায়ে গুরুতর আঘাত ছিলো। এসময় সিএনজি ফিলিং স্টেশনের মালিক আক্তার হোসেন আগুন লাগার খবর শুনে দ্রুত ছুটে আসলেও কথা বলতে রাজি হননি। এবিষয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি মামুন অর রশিদ জানান, ফিলিং স্টেশনে গ্যাস ভরার সময় একটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে রনি নামে একজন মিটফোর্ড হাসপাতালে মারা যায় ও আহত অপর দুইজন ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এদিকে কেরানীগঞ্জ উপজেলা সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, সিলিন্ডারভর্তি কার্গো ট্রাকে পাইপ ও মিটার বসিয়ে বানানো হয়েছে ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশন। উপজেলার কালিন্দী-রোহিতপুর গুরুত্বপূর্ণ আবাসিক এলাকায় অবৈধ ফিলিং স্টেশনের দেখা মেলে। যেখান থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশাসহ ব্যক্তিগত গাড়িতে গ্যাস দেওয়া হয়। সিএনজি অ্যান্ড ফিলিং স্টেশনের একটি কার্গো ট্রাকের কর্মচারী রবিন মাদবর জানান, তার মালিকের দুটি কার্গো ট্রাক রয়েছে। তারা এসব কার্গোতে কুমিল্লা থেকে গ্যাস ভরে আনে। এখানে চালক ও চালানদার আছে। একবার নিয়ে এলে তা তিনচারদিন বিক্রি করতে পারে। পাঁচ বছর ধরে এ ব্যবসা চলে আসছে। এ পয়েন্টে তারা দু'জনসহ স্থানীয় চারজন মিলে এ ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। উপজেলার কোনাখোলা সড়কের সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক হেলাল উদ্দিন জানান, এ উপজেলায় অনুমোদিত সিএনজি ফিলিং স্টেশন রয়েছে। তবে যাওয়া-আসার সময় বাঁচানোসহ নানা কারণে ভ্রাম্যমাণ সিএনজি স্টেশনেই যাচ্ছেন তারা। আরেক সিএনজি অটোরিকশা চালক জসিম খাঁ বলেন, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ না থাকায় এসব ঝুঁঁকিপূর্ণ ব্যবসা চলছে। অনেক ভাড়াটে ভ্রাম্যমাণ ট্রাকের আতঙ্কে এ এলাকা ছেড়ে অন্যত্র বাড়ি ভাড়া নিচ্ছেন। কালিন্দী এলাকার বাসিন্দা হারুন রশীদ জানান, আমাদের এ রাস্তা মোবাইল কোর্টে ফিলিং স্টেশন বন্ধ ছিলো, কিন্তু নতুন করে আবার একটি ফিলিং স্টেশন আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে; এস্টেশনে প্রতিনিয়ত সিএনজিভর্তি কার্গো ট্রাক থামতে দেখা যায়। কার্গো ট্রাকে ভ্রাম্যমাণ ফিলিং স্টেশন বানিয়ে অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রি করছে। সিএনজি পাম্পের পাশ্ববর্তী বাড়ির বাসিন্দা আলো বেগম বলেন, সব সময়ই আতঙ্কের মধ্যে থাকি, কখন কী ঘটে যায়। জোরে শব্দ শুনলেই ভয়ে বুক কেঁপে ওঠে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। এতে আমাদের চারপাশের মানুষের আতঙ্কে দিন কাটছে। তিনি আরও বলেন, প্রশাসনের কাছে আবেদন, এফিলিং স্টেশন সরান, আমাদের বাঁচান। যদি এই ফিলিং স্টেশন লোকালয় থেকে না সরানো হয় তবে এক সময় মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে আমাদের। তখন কেঁদেও সেই ক্ষতি পূরণ করা সম্ভব হবে না। অন্যদিকে মেহেরা সিএনজি ফিলিং স্টেশনের স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন বলেন, অবৈধ ও ঝুঁকিপূর্ণ সিএনজি বিক্রির ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়া হোক। এসব স্টেশনে অনুমোদন নেয়া প্রয়োজন মনে করে না। সেখানে কোনো রকম প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও নেই। কখনও সেখানে দুর্ঘটনা ঘটলে একটা বোমার মতো অবস্থা হবে। যা কালিন্দী আমিরবাগ এলাকার তিনটি পরিবারের জীবন ধ্বংস করে দিলো। ঢাকা বিভাগের ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উপপরিচালক বলেন, এ ধরনের ঝুঁকিপূর্ণ গ্যাস বিক্রি কোনো অনুমোদন দেওয়া হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী কাভার্ডভ্যানে করে গ্যাস বিক্রি বেআইনি। মঙ্গলবারের সিএনজি ফিলিং স্টেশন বিস্ফোরণ ঘটনায় শোক প্রকাশ করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফয়সল বিন করিম জানান, ভ্রাম্যমাণ যানবাহনে অবৈধভাবে গ্যাস সরবরাহ বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। ঢাকা জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান বলেন, অবৈধ ঝুঁকিপূর্ণ সিএনজি ফিলিং স্টেশন কোনোভাবেই রাখতে দেওয়া হবে না। এবং কাভার্ডভ্যানে করে অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-10-11 08:13:29.067738 +0200 CEST