যায়যায়দিন
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

রাজধানীর সদরঘাটে অবস্থিত দেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি)। ২০০৫ সালের ২০ অক্টোবর জাতীয় সংসদে গৃহীত ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আইন’ বলে তৎকালীন জগন্নাথ কলেজকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করা হয়। শুক্রবার ছুটি থাকায় আজ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়টির ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শহীদ মিনার চত্বরে সকাল সাড়ে ৯টায় জাতীয় পতাকা ও জবির পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হবে। ৯টায় ৪০ মিনিটে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের উদ্বোধন করবেন রুটিন দায়িত্বপ্রাপ্ত উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কামালউদ্দীন আহমদ। ৯টায় ৫০ মিনিটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। সকাল ১০টায় আনন্দ র‌্যালি জবি ক্যাম্পাস থেকে রায়সাহেব বাজার দিয়ে ভিক্টোরিয়া পার্ক অতিক্রম করে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করবে। র‌্যালি থেকে ফিরে ১০টা ৪৫ মিনিটে ভাষাশহীদ রফিক ভবনের নিচতলায় প্রকাশনা উৎসবের উদ্বোধন করা হবে। এরপর ১১টায় বার্ষিক চারুকলা প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হবে। কেন্দ্রীয় মিলনয়াতনে (নকশিকাঁথার মাঠ) নাটক পরিবেশনা করা হবে। মুজিব মঞ্চে সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে। পাশাপাশি আবৃত্তি সংসদ ও উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হবে। জবির বিভিন্ন সংগঠনের (ব্যান্ডদল) অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে আয়োজনের সমাপ্তি ঘোষণা করা হবে। পাঠশালা হিসেবে যাত্রা শুরু করা এই বিদ্যাপীঠ সময়ের পালাবদলে অর্জনে সমৃদ্ধ হয়েছে। শিক্ষার্থীরা জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় সাফল্য অর্জন করছেন ধারাবাহিকভাবে৷ বিশ্ববিদ্যালয়টি পুরোপুরি ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিয়ার আওয়ায় আনার প্রচেষ্টা চলছে। কেরানীগঞ্জে নির্মিত হচ্ছে দ্বিতীয় ক্যাম্পাস৷ ইতোমধ্যেই লেক খননের কাজ সম্পন্ন হয়েছে৷ অধিগ্রহণ করা হয়েছে ২০০ একর জমি। দেয়াল নির্মাণের কাজ চলছে৷ গত বছর বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে ছাত্রীদের আসন বণ্টনের মধ্যদিয়ে অনাবাসিক তকমা ঘুচেছে জবির। ডিনস অ্যাওয়ার্ড চালুর উদ্যোগ নেওয়ার পাশাপাশি ইংরেজি বিভাগে চালু করা হয়েছে চেয়ারম্যান’স অ্যাওয়ার্ড। বর্তমান বিশ্ববিদ্যালয়ে ছয়টি অনুষদের অধীনে ৩৬টি বিভাগ ও দু’টি ইনস্টিটিউট আছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬৭৮ জন শিক্ষক, ১৫ হাজার ৯৬০ শিক্ষার্থী ও প্রায় ৭০০ কর্মকর্তা-কর্মচারী আছেন। বর্তমানে ১৫৬ জন অধ্যাপক কর্মরত আছেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ে৷ এর মধ্যে গ্রেড-১ পদে ৩৬ জন, গ্রেড-২ পদে ৪৬ জন এবং গ্রেড-৩ পদে ৭৪ জন অধ্যাপক আছেন। জবির রুটিন দায়িত্বপ্রাপ্ত উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কামালউদ্দীন আহমদ বলেন, অবকাঠামোর সুযোগ-সুবিধা ছাড়াই আমাদের শিক্ষার্থীরা সফল হচ্ছেন। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের যত্ন নিচ্ছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান বৃদ্ধি পাচ্ছে৷ সব সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে জবি আরও এগিয়ে যাবে বলে প্রত্যাশা করছি। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-10-19 05:43:48.434502 +0200 CEST