যায়যায়দিন
ইবিতে র‍্যাগিং ও মেডিক্যাল ভাঙচুরের ঘটনায় ৩ শিক্ষার্থী স্থায়ী বহিষ্কার

ইবিতে র‍্যাগিং ও মেডিক্যাল ভাঙচুরের ঘটনায় ৩ শিক্ষার্থী স্থায়ী বহিষ্কার

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) মেডিক্যাল ভাঙচুর ও র‍্যাগিংয়ের ঘটনায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এতে ৩ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার ও এক বছরের জন্য আরও ৩ শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। মঙ্গলবার ছাত্র শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ডক্টর শেলীনা নাসরীন। স্থায়ী বহিষ্কৃতরা হলেন আইন বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী রেজওয়ান সিদ্দিকী কাব্য, হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী হিশাম নাজির শুভ ও মিজানুর রহমান ইমন। সাময়িক বহিষ্কৃতরা হলেন হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার পুলক, শেখ সালাউদ্দিন সাকিব ও সাদমান সাকিব আকিব। তথ্য মতে, গত ১০ জুলাই মেডিক্যাল ভাংচুরের ঘটনায় রেজওয়ান সিদ্দিকী কাব্যের সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হওয়ায় তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। তার সাথে থাকা অন্য দুই শিক্ষার্থী সালমান আজিজ, আতিক আরমান কাব্যের সঙ্গে থাকলেও সরাসরি সংশ্লিষ্ট না থাকায় তাদের সতর্ক করা হয়েছে। এদিকে গত ৯ সেপ্টেম্বর হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের নবীন শিক্ষার্থীকে র‍্যাগিংয়ের প্রমাণ পাওয়ায় ও তদন্ত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে ২ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়। তারা হলেন - হিশাম নাজির শুভ ও মিজানুর রহমান ইমন। এছাড়া এক বছর বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা হলেন, শাহরিয়ার পুলক, শেখ সালাউদ্দীন সাকিব ও সাদমান সাকিব আকিব। ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ডক্টর শেলীনা নাসরীন বলেন, মেডিক্যাল ভাঙচুরের ঘটনায় কাব্যকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে তার সাথে থাকা বাকি দুইজনের কোনো সংশ্লিষ্টতা পাইনি তদন্ত কমিটি। এজন্য তাদের বিরুদ্ধে কোনো একশন নেওয়া হয়নি। তবে তাদের সতর্ক করা হয়েছে। আর র‍্যাগিংয়ের ঘটনায় ইমন ও শুভকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে। বাকি ৩ জনকে ১ বছরের জন্য সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-10-03 10:58:38.67621 +0200 CEST