যায়যায়দিন
মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ভিড়ে মুখর আ’লীগ কার্যালয়

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ভিড়ে মুখর আ’লীগ কার্যালয়

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রির দ্বিতীয় দিনে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তিল ধারণের জায়গা ছিল না। দলটির মনোনয়ন প্রত্যাশী ও তাদের সঙ্গে আসা নেতাকর্মীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল কার্যালয়ের আশপাশের সড়কগুলোয়ও। দিনভর ঢাকঢোলের বাজনা আর জয় বাংলা স্লোগানে গোটা এলাকা মুখরিত করে রাখেন তারা। এদিকে নেতাকর্মীদের বাড়তি চাপে বিক্রি কার্যক্রমে ধীরগতি হলে রোববার মোট ১ হাজার ২১২ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। আর এতে দলের আয় হয়েছে ৬ কোটি ৬ লাখ টাকা। এদিনও সকাল ১০টা থেকে মনোনয়ন ফর্ম বিক্রি শুরু হওয়ার কথা থাকলে ভোর থেকেই কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জড়ো হতে থাকেন মনোয়নয় প্রত্যাশী ও তাদের সঙ্গে আসা নেতাকর্মীরা। ঢাক-ঢোলের বাজনা, ব্যানার-ফেস্টুনসহ নৌকা প্রতীক হাতে মিছিল সহকারে মনোনয়ন কিনতে ও জমা দিতে আসেন প্রার্থী ও তার সমর্থকরা। এ ছাড়া বিশাল মোটর শোভাযাত্রা করেও এসেছেন অনেক প্রার্থী। ফলে সকাল ১১টার আগেই নেতাকর্মীতে পূর্ণ হয়ে যা কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও তার আশপাশের সড়ক। যদিও মনোয়নপত্র সংগ্রহে সর্বোচ্চ দুজনকে আসার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এদিন বেশিরভাগ নেতাই অর্ধশত, কেউ আবার এর থেকেও বেশি কর্মী নিয়ে এসেছেন। ফলে আগত নেতাকর্মীদের ভিড় সামাল দিতে হিমশিম খেয়েছে স্বেচ্ছাসেবক এবং পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা। বারবার মাইকে ঘোষণা দিয়ে সাধারণ কর্মীদের বাইরে অবস্থানের অনুরোধ করা হলেও কার্যালয়ের ভেতরে ভিড় করেন তারা। এক পর্যায়ে বাইরে ব্যারিকেড দিয়ে প্রার্থীর সঙ্গে আসা সমর্থকদের ভেতরে প্রবেশ আটকানোর চেষ্টা করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। কিন্তু কোনোভাবেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি। ফলে ভিড় ঠেলেই দীর্ঘসময় অপেক্ষার পর মনোয়নপত্র সংগ্রহ করতে হয়েছে তাদের। রোববার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা নেওয়া। এর আগে শনিবার মনোনয়ন ফরম কিনে আওয়ামী লীগের এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। যা চলবে আগামী ২১ নভেম্বর পর্যন্ত। এ ছাড়া এদিকে অনলাইনে ফরম পূরণ করেও মনোনয়ন জমা দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। এদিকে রোববার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়পত্র জমা দিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন। এসময় সংবাদিকদের তিনি বলেন, তফসিল ঘোষণার পর থেকে সারা দেশে মানুষের মধ্যে নির্বাচনমুখী জোয়ার এসেছে। তাই শত শত লোক আওয়ামী লীগ অফিসের সামনে এসেছেন। এই গণজোয়ার ও গণজাগরণ দেখে আমরা খুবই আনন্দিত। দারুণ অনুপ্রেরণা এসেছে। এদিন, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন ও তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদসহ মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন ১ হাজার ২১২ জন। এর মধ্যে সরাসরি মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ১ হাজার ১৮০ জন আর অনলাইনে কিনেছেন ৩২ জন। আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানিয়েছে ২য় দিনে ফরম বিক্রিতে আয় হয়েছে ৬ কোটি ৬ লাখ টাকা। এর আগে শনিবার প্রথম দিনে ১ হাজার ৭৪টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়। এতে আয় হয় ৫ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। দুই দিনে মোট ১১ কোটি ৪৩ লাখ টাকার মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পেয়েছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পাশাপাশি স্থানীয় নির্বাচনেও প্রার্থীর অংশগ্রহণ বেড়েছে। তিনি বলেন, আমরা প্রত্যাশা করি, এ দুই দিনের তুলনায় আরও বেশি বা সমপরিমাণ মনোনয়ন ফরম আগামী দুই দিনে বিক্রি হবে। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-11-20 04:43:40.829854 +0100 CET