যায়যায়দিন
পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে মাঠ পর্যায়ে নজরদারি বাড়তে সরকারের নির্দেশ

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে মাঠ পর্যায়ে নজরদারি বাড়তে সরকারের নির্দেশ

সম্প্রতি পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় মাঠ পর্যায়ে নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে সরকার। সোমবার (১১ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকের ব্রিফিংয়ে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন এ তথ্য জানান। সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। বৈঠকে পেঁয়াজের দাম নিয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, পেঁয়াজ নিয়ে কেবিনেটে না, আলাদাভাবে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সেটি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কাছে। আপনারা দেখতে পাচ্ছেন মাঠ পর্যায়ে এখন ক্লোজ মনিটরিং হচ্ছে, আপনারা দেখতে পাচ্ছেন তো এটা। এবং আজ তার কিছুটা ইমপ্যাক্ট পাওয়া যাচ্ছে এটা দেখতে পাচ্ছেন তো আপনারা, পাচ্ছেন না? গতকাল যে (পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির) ট্রেন্ড ছিল আজ তো সে ট্রেন্ড নেই।’ সুনির্দিষ্টভাবে কী নির্দেশনা ছিল- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সরকারের তরফ থেকে নির্দেশনা হচ্ছে মাঠ পর্যায়ে আমাদের নজরদারি বাড়ানো। যারা এসব কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের দিকে নজরদারি বাড়ানো এবং আমাদের যারা অতিরিক্ত মুনাফা পাওয়ার চেষ্টা করছে তাদের আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করা। তো সেটি কেবিনেটে আলোচনা হয়নি। তিনি বলেন, নির্দেশনা পাওয়ার পরে মাঠ পর্যায়ে টিম কাজ করছে। এ নির্দেশনা কি মন্ত্রিসভার বৈঠকে দিয়েছেন নাকি বাইরে দিয়েছেন- জানতে চাইলে মাহবুব হোসেন বলেন, ওই সিদ্ধান্ত তো কেবিনেটে আলোচ্য বিষয় ছিল না। ওটা হলো সাধারণ প্রশাসনিক ব্যাপার। যখন একটি ক্রাইসিস বা সমস্যা তৈরি হয় তখন ওই মন্ত্রণালয় যারা সংশ্লিষ্ট থাকেন তাদের নিয়ে আলোচনা করে আমরা সিদ্ধান্তগুলো দিয়ে থাকি। যেহেতু এটা নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে তাই আজ কোনো আলোচনা হয়নি। নির্বাচনের আগে কেবিনেট মিটিং আর হবে কি হবে না এ প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, নির্বাচনের আগে মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক বা কেবিনেট মিটিং আর হবে কি হবে না, সেটা এখনই বলা যাবে না। সরকার যদি মনে করে কোনো গুরুত্বপূর্ণ আইন বা বিষয় রয়েছে আলোচনার জন্য তখন কেবিনেট বৈঠক হতে পারে। সচিব জানান, আজকের মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বিমান চলাচল চুক্তির খসড়া অনুমোদন করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশ থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নে বিমান চলাচল করতে হলে সেখানকার স্ট্যান্ডার্ড মেনে চলতে হবে বলে খসড়ায় উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া, জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জে সাড়ে ৩০০ একর জমিতে ‘মাদারগঞ্জ সোলার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড’ নামে একটি কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। কিয়ার চায়না এবং বিআর পাওয়ারজেন লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে এটি নির্মাণ হবে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ভোলায় যে গ্যাস পাওয়া গেছে সেটা স্থানীয়ভাবে সার কারখানা নির্মাণ করে ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এগুলো ঢাকায় এনে সিলিন্ডারে করে ব্যবহার হচ্ছে এখন, যদিও তা সামান্য। তাই এটাকে যথাযথ ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া বৈঠকে ‘সামুদ্রিক পর্যটন নীতিমালা-২০২৩’ এর খসড়া অনুমোদন করেছে। পর্যটকদের আকর্ষণ করতে হলে এ নীতিমালার আওতায় পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে সমুদ্রবন্দরের পাশে। কোথায় কোথায় পর্যটন কেন্দ্র হবে সেটা নির্ধারণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সচিব বলেন, স্বেচ্ছাসেবা বাংলাদেশে খুবই ভালো একটি ক্ষেত্র। এরই মধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় স্বেচ্ছাসেবায় আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছি। বাংলাদেশের মানুষ বিভিন্নভাবে, বিভিন্ন প্রয়োজনে স্বেচ্ছাসেবা করে। স্বেচ্ছাসেবা প্রতিষ্ঠানগুলো ভালোভাবে কাজ করছে। তাদের কাজকে সহযোগিতা করার জন্য, তাদের কীভাবে আরো উৎসাহিত করা যায় সেগুলো নিশ্চিত করার জন্য এ নীতিমালা। তিনি বলেন, স্বেচ্ছাসেবীদের বিভিন্ন শ্রেণিতে ভাগ করা হবে। তাদের প্রশিক্ষণের কথা বলা হয়েছে। তাদের ছবিসহ আইডি কার্ড থাকবে। তাদের সুরক্ষা দিতে হবে। কাজ করতে গিয়ে তারা যদি আইনি কোনো সমস্যায় পড়েন সেখানেও তাকে সহযোগিতা করা হবে। এ বিষয়গুলো দেখভাল করার জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি কাউন্সিল হবে। যাযাদি/এস এস
Published on: 2023-12-11 14:03:26.53888 +0100 CET