যায়যায়দিন
চেম্বার জজ আদালতে সাদিক আবদুল্লাহর মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণা

চেম্বার জজ আদালতে সাদিক আবদুল্লাহর মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণা

বরিশাল-৫ (সদর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষনা করেছেন আদালত। এর মাধ্যমে সাদিকের প্রার্থীতা চুরান্তভাবে বাতিল হলো। সাদিক আব্দুল্লাহর হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) করা আপিলের প্রেক্ষিতে চেম্বার জজ আদালতের বিচারক এ রায় প্রদান করেন। বরিশাল সদর আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর হলফনামার বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন নৌকার প্রার্থী জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি কর্নেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামীম। কিন্তু জেলা রিটার্নিং অফিসার সেই অভিযোগ আমলে নেননি। পরে ৬ ডিসেম্বর জাহিদ ফারুকের পক্ষে তার মনোনয়নপত্রের সমর্থনকারী কেবিএস আহমেদ কবির নির্বাচন কমিশনে (ইসি) পুনরায় আপিল করেন। আপিলের ব্যাপারে জানা যায়, সাদিক আব্দুল্লাহ তার হলফনামায় স্ত্রীর সম্পত্তির হিসাব গোপন করেছেন। তার স্ত্রীর নামে আমেরিকায় বাড়ি আছে। অথচ তিনি তা হলফনামায় দেখাননি। অন্যদিকে সাদিক আব্দুল্লাহ নিজেও দ্বৈত নাগরীক। তিনি আমেরিকার একজন ভোটার। এসব অভিযোগের শুনানি শেষে ১৫ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন সাদিকের মনোনয়ন বাতিল করেন। ওই রায়ের বিরুদ্ধে সাদিক আব্দুল্লাহ ১৭ ডিসেম্বর হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করেন। আদালত শুনানি শেষে সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) সাদিক আবদুল্লাহর পক্ষে রায় প্রদান করেন। এরপর তার সমর্থকরা নগরীতে বিজয় আনন্দ পর্যন্ত করেন। এমনকি বিজয় দিবসের সমাবেশের নামে তার পক্ষে নেতা-কর্মীরা ভোট প্রার্থনা করেন। তবে সেই পরিবেশ বেশি সময় স্থায়ী হয়নি। মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) সকালে চেম্বার জজ আদালতে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন বরিশাল-৫ আসনের নৌকার প্রার্থী কর্নেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামীম। তার পক্ষে আপিল করেন ব্যারিষ্টার এহসানুল হক ও ব্যারিষ্টার সিদ্দিকুর রহমান। বিচারপতি এনায়েতুর রহমান আপিল শুনানি শেষে সাদিক আব্দুল্লাহর পক্ষে দেয়া হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেন। ফলে অবৈধ হয়ে যায় তার মনোনয়ন। মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এ্যাডভোকেট লস্কর নুরুল হক বলেন, সাদিকের হাইকোর্টের প্রাপ্ত রায়ের বিরুদ্ধে নৌকা প্রার্থীর পক্ষে লিপ টু আপিল করা হয়েছিল। বিচারক শুনানি শেষে হাইকোর্টের সেই রায় স্থগিত করে দেন। এতে করে মনোনয়ন অবৈধ হলো সাদিক আব্দুল্লাহর। এরপর আর আপিলের সুযোগ নাই বলে জানান এই আইনজীবী। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-12-19 09:41:58.925392 +0100 CET