যায়যায়দিন
আওয়ামী লীগ ছাড়া কেউ শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ ছাড়া কেউ শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা আমাদের কাছে একজন ইন্সপায়ারিং লিডার। সেটা আমাদের গর্বিত করে। বাংলাদেশে গত ৪৮ বছরে সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতার নাম শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে গত ৪৮ বছরে সাহসী রাজনীতিকের নাম শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে গত ৪৮ বছরে সৎ নেতার নাম শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে গত ৪৮ বছরে দক্ষ প্রশাসকের নাম শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে গত ৪৮ বছরে সবচেয়ে সফল ডিপ্লোমেটিকের নাম শেখ হাসিনা।’ আজ বুধবার সকালে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে আওয়ামী লীগের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনী ইশতেহার অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা এক প্রতিক‚ল পরিবেশের মুখে লড়াই করে যাচ্ছি। নির্বাচন আমাদের করতে হবে, সংবিধানের বাধ্যবাধকতা। আওয়ামী লীগ ছাড়া কেউ শান্তিপূর্ণ ভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি। নির্বাচিত সরকার ক্ষমতা হস্তান্তর করবে নির্বাচিত সরকারের হাতে, সেটা আমরা বিশ্বাস করি।’ ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ছাড়া কেউ আর বাংলাদেশে শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি। ‘ঠুঁটো জগন্নাথ’ মার্কা নির্বাচন কমিশন আমরা চাই না।’ ‘আইআরআই জরিপ বলছে, ‘দেশের ৭০ শতাংশ শেখ হাসিনাকে সমর্থন করেন। আমরা ভয় পাবো কাকে? ভয়ে কাঁপে কাপুরুষ, লড়ে যায় বীর’, উল্লেখ করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি আরও বলেন, ‘ভোটারদের টার্ন আউট নিয়ে আমাদের কোনো সন্দেহ নেই। জনগণ ভোট দেওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। সারা বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষ ৭ জানুয়ারি ভোট দেওয়ার জন্য প্রস্তুত। জয় আমাদের হবে।’ তিনি বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এ আগুন সন্ত্রাস, সন্ত্রাস, জ্বালাও-পোড়াও আমরা দেখেছি বারেবারে। এই সব ষড়যন্ত্র, এইসব সন্ত্রাস মোকাবেলা করেই আমরা আমাদের লাল সবুজের পতাকা হাতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিজয়ের বন্দরে পৌঁছাব ইনশাআল্লাহ।’ স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করে ‘উন্নয়ন দৃশ্যমান, বাড়বে এবার কর্মসংস্থান’- এ স্লোগান দিয়ে এবারের ইশতেহার প্রকাশ করা হচ্ছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইশতেহার প্রণয়ন উপ-কমিটির আহবায়ক ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড, আব্দুর রাজ্জাক। এরপর বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। যাযাদি/ এসএম
Published on: 2023-12-27 08:33:53.51503 +0100 CET