যায়যায়দিন
ঈশ্বরদীতে সুদের টাকা দিতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা

ঈশ্বরদীতে সুদের টাকা দিতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা

স্থানীয় সুদ কারবারির নিকট থেকে নির্ধারিত পরিমানে সুদ বিনিময়ের চুক্তিতে টাকা নিয়েছিল মো. সিজল (২৮)। শর্তানুসারে সেই টাকা এবং তার সুদ না দেওয়ায় সুদ কারবারী তাকে চরম ভাবে অপমান করেন। সেই অপমান সইতে না পেরে বৃহস্পতিবার (২০ জুলাই) গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন সিজল নামের ঐ যুবক। ঘটনাটি ঈশ্বরদী উপজেলা সলিমপুর ইউয়িনের মানিকনগর পশ্চিম পাড়া ন্যাংড়ার দোকান এলাকায় ঘটেছে। নিহত সিজল একই গ্রামের সাইদুল প্রামাণিকের ছেলে। স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানাযায়, সিজল তার ব্যক্তিগত প্রয়োজনে সকলের অগচরে স্থানীয় সুদকারবারি মো. আলেপ সরদারের নিকট থেকে উচ্চহারে সুদ প্রদানের প্রতিশ্রুতিতে কিছু টাকা নেন। কিন্তু শর্তানুসারে সেই টাকার সুদ ও আসল পরিশোধ করতে বিলম্ব হয়। সিজলের টাকা প্রদানে বিলম্বের জেরে সুদ কারবারী আলেপ সরদার বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করলে সিজল এবং সুদকারবারির মধ্যে বাক বিতন্ডা বাধে। বাকবিতন্ডার সেই তীব্র অপমান সহ্য করতে না পেরে ঐ রাতেই গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্নহত্যার চেষ্টা করেন। বিষয়টি পরিবারের লোকজন বুঝতে পেরে আহত সিজলকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সিজলের মৃত্যু হয়। ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ অরবিন্দ সরকার যায়যায়দিনকে বলেন, খবর পেয়ে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহত সিজলের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-07-21 10:23:16.13467 +0200 CEST