যায়যায়দিন
সরকারি চাকরিজীবীদের জীবনমান উন্নয়নে উদ্যোগ

সরকারি চাকরিজীবীদের জীবনমান উন্নয়নে উদ্যোগ

সরকারি চাকরিজীবীদের জীবনমান উন্নয়নে উন্নত বিশ্বের মতো জীবন বীমা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এজন্য বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অধীনে একটি স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই বীমা কোম্পানি গঠনের আগে এ বিষয়ে মতামত চেয়ে সব মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের গত ৩ আগস্ট চিঠি পাঠিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড আইনের ৬ (থ) ধারায় যৌক্তিক, বাস্তবধর্মী ও অধিকতর কল্যাণমুখী নতুন নতুন কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়নের কথা বলা হয়েছে। আর ১৮ ধারায় বলা হয়েছে, বোর্ড বীমা কোম্পানি খুলতে পারবে বা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের জন্য জীবন বীমা করতে পারবে। আরও বলা হয়েছে, বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড আইনের ৬ (থ) ধারায় যৌক্তিক, বাস্তবধর্মী ও অধিকতর কল্যাণমুখী নতুন নতুন কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়নের কথা বলা হয়েছে। আর ১৮ ধারায় বলা হয়েছে, বোর্ড বীমা কোম্পানি খুলতে পারবে বা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের জন্য জীবন বীমা করতে পারবে। এই বিধান অনুযায়ী সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বীমা সেবার আওতায় আনতে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অধীনে একটি স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্তসহ গত ১৫ ফেব্রুয়ারি বোর্ড সভায় উপস্থাপন করা হয়। ওই সভায় স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠনের প্রয়োজনীয়তা ও যৌক্তিকতা, জীবন বীমা করপোরেশন থেকে পাওয়া প্রস্তাব, সুবিধা-অসুবিধা ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত পর্যালোচনা করে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অধীনে একটি স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। বোর্ড সভায় বীমা কোম্পানি গঠনের লক্ষ্যে বীমা বিশেষজ্ঞ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগের প্রস্তাবও অনুমোদন দেওয়া হয়। এরপর বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অধীনে একটি স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠন এবং পরামর্শক নিয়োগ ও পরামর্শকের কার্যপরিধি নির্ধারণে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন চেয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিবের কাছে গত ১১ এপ্রিল চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড। বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের কাছ থেকে ওই চিঠি পাওয়ার পর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের মতামত জানতে চেয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রস্তাবিত স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠনের বিষয়টি কেন্দ্রীয় ও মাঠপর্যায়ের সব সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর জন্য প্রযোজ্য বিধায় রুলস অব বিজনেস অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগের তথা সব স্টেকহোল্ডারদের মতামত প্রয়োজন। এ অবস্থায় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বীমা সেবার আওতায় আনতে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অধীন একটি স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠনের প্রস্তাবের বিষয়ে আগামী ২৭ আগস্টের মধ্যে সুস্পষ্ট মতামত ই-নথিতে পত্রজারির মাধ্যমে পাঠানোর জন্য চিঠিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এদিকে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, সংশ্লিষ্টদের মতামত পাওয়ার পর বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অধীনে একটি স্বতন্ত্র বীমা কোম্পানি গঠন করা হবে। এই কোম্পানি গঠনের পর গ্রুপ স্বাস্থ্য বীমা (প্লাটিনাম), গ্রুপ স্বাস্থ্য বীমা (গোল্ড), গ্রুপ স্বাস্থ্য বীমার (সিলভার) কাভারেজ, কাভারেজ অ্যামাউন্ট এবং এক, চার ও ছয় সদস্যের প্রিমিয়াম কীভাবে নির্ধারণ করা হবে সে বিষয়েও খসড়া করে রেখেছে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-08-07 05:10:07.251504 +0200 CEST