যায়যায়দিন
৫১৭ জন পর্যটক নিয়ে সেন্টমার্টিন-টেকনাফ নৌপথে জাহাজ চলাচল শুরু

৫১৭ জন পর্যটক নিয়ে সেন্টমার্টিন-টেকনাফ নৌপথে জাহাজ চলাচল শুরু

সকল জল্পনার অবসান ঘটিয়ে নানা জটিলতা কাটিয়ে দীর্ঘ ৭ মাসের মাথায় অবশেষে কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলার টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে। ফলে পর্যটকদের স্বস্তির পাশাপাশি পর্যটন সংশ্লিষ্টদের মুখে হাসি ফুটেছে। আজ বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় ৫১৭ জন পর্যটক নিয়ে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট ছেড়ে যায় বার আউলিয়া নামের একটি যাত্রীবাহী জাহাজ। সবকিছু ঠিক থাকলে বেলা সাড়ে বারোটার দিকে সেন্টমার্টিন দ্বীপে পৌঁছাবে জাহাজ'টি। কোন ধরনের সমস্যা না হলে বিকাল ৩ টার দিকে টেকনাফের উদ্দেশ্যে সেন্টমার্টিন ছেড়ে আসবে জাহাজটি। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আদনান চৌধুরী জানান, পর্যটন দিবস উপলক্ষ্যে বার আউলিয়া নামের একটি পর্যটকবাহী জাহাজ ৫১৭ পর্যটক নিয়ে দমদমিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে যায়। আবহাওয়া খারাপ হলে জাহাজ চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে। জাহাজটি এক সপ্তাহের জন্য অনুমোদন দেয়া হয়। এরপরে বৈঠকের মাধ্যমে এটিসহ অন্যান্য জাহাজ চলাচল করবে কি-না সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এর আগের দিন মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে টেকনাফ দমদমিয়া জেটিঘাট থেকে জেলা প্রশাসনের একটি প্রতিনিধি পরীক্ষামূলকভাবে যাত্রা শুরু করে। বার আউলিয়া জাহাজের পরিচালক হোসাইনুল ইসলাম বাহাদুর বলেন, আমাদের জাহাজ পরীক্ষামূলক চালু হয়েছে। তবে ইতোমধ্যে অনলাইনে অনেক টিকেট বুকিং হয়েছে। প্রসঙ্গত, টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে চলতি বছরের ১ মার্চ থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এই রুটে ১৬ বছর ধরে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল করলেও নাফনদীর বিভিন্ন জায়গায় বালুচর জেগে উঠে। নাব্যতা সংকট সহ মাঝে মধ্যে জাহাজ আটকানোর ঘটানা ঘটে থাকে। যাযাদি/ এস
Published on: 2023-09-27 09:20:17.302456 +0200 CEST