যায়যায়দিন
রাজারহাটে ঘন কুয়াশা, কনকনে ঠান্ডা

রাজারহাটে ঘন কুয়াশা, কনকনে ঠান্ডা

বছরের শুরুতেই ১জানুয়ারী(সোমবার) কুড়িগ্রামের রাজারহাটে জেঁকে বসেছে শীত। ঘন কুয়াশা আর কনকনে ঠান্ডায় বিপাকে পড়েছেন শ্রমজীবী ও সাধারণ মানুষজন। এদিকে দিনের বেলাতেও সড়কে হেড লাইট জ্বালিয়ে ভারী যানবাহন চলতে দেখা গেছে। এছাড়া স্কুলগামী ছোট ছোট ছেলে-মেয়েরা ঠান্ডা উপেক্ষা করে নতুন বছরে নতুন বই নিতে এসেছেন। কনকনে ঠান্ডাও তাদের মনে আজ আনন্দ দেখা গেছে। সোমবার (১ জানুয়ারি) সকাল ৬টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে তাপমাত্রা আরো কমতে পারে বলে জানিয়েছে রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া অফিস। উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের কৃষক নজরুল ইসলাম বলেন, এতো ঠান্ডায় ঘর থেকে বের হওয়াই কষ্ট। বাহিরে ঠান্ডা বাতাসে পুরা শরীরে কাপুনি শুরু হয়। কিন্তু উপায় নেই কাজ তো করতে হবে। ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের খিতাবখাঁ বুড়িরহাট এলাকার বানু মামুদ, মহিলা বেওয়াসহ অনেকে বলেন, এতদিন শীত কম থাকলেও আজ হঠাৎ ঠান্ডা বেড়ে গেছে। তিস্তা নদীর কনকনে বাতাসে মানুষ আজ(সোমবার) অতিষ্ট হয়েছে। ঠান্ডায় তো কাজ-কাম করা যাচ্ছে না। এ ছাড়া ইরি-বোরো বীজ তলা নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় আছি। যে হারে শীত শুরু হলো এতে বীজতলা নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা আছে। রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার জানান, কুড়িগ্রাম অঞ্চলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামীকাল থেকে তাপমাত্রা আরো কমতে পরে বলে সম্ভাবনা রয়েছে যাযাদি/ এস
Published on: 2024-01-01 09:02:35.29417 +0100 CET