যায়যায়দিন
ফরিদপুরে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় নেতাকর্মীদের ঢল

ফরিদপুরে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় নেতাকর্মীদের ঢল

শীতের ঘন কুয়াশ কেটে বেলা বাড়ার সাথে সাথে নৌকার মিছিল আর স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে ফরিদপুরের রাজপথ ধরে প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী জনসভাস্থলে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ঢল নামে। মঙ্গলবার বিকাল ৩টার পরে ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য দিবেন অাওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। গত দুই দিনে ধরে দিনরাত কাজ করে বিপুল সংখ্যক শ্রমিক নৌকার আদলে তৈরী করে সভামঞ্চ। যেখানে থাকবেন জেলার চারটি সংসদীয় আসনের আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীরা। প্রধানমন্ত্রীকে দেখতে ও তার কথা শুনতে সকাল থেকে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে জনসভা মাঠে আসতে শুরু করে সবাই। এছাড়াও জনসভা মাঠকে বিভিন্ন স্তরে ভাগ করে আসন বিন্যাস করা হয়েছে। রাজেন্দ্র কলেজের শহর শাখার মাঠের চারিপাশে ৪টি ফটকের মধ্যে বাশের গেটের ভিতর দিয়ে নিরাপত্তার সাথে জনসভায় প্রবেশ করতে হবে জনসাধারণদের কে। মঙ্গলবার সকাল থেকে জেলায় প্রচন্ড কুয়াশা আচ্ছান্ন ছিল। সকাল ৭টা থেকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ, আনসার, সেনা ও র্যব সদস্যসহ গোয়েন্দা বাহিনীর নিরাপত্তা সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীর জনসভামঞ্চসহ আশপাশে অবস্থান করতে শুরু করে। ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার নির্বাচনী জনসভা থেকে জেলার ৪টি আসনে নৌকার প্রার্থীদের পক্ষে ভোট চাইবেন। এছাড়া আগামীর দিক নির্দেশনা ও উন্নয়নের কথা বলবেন। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করতে ও জনসভাকে সফল করতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। নৌকার নির্বাচনী পোস্টার, ব্যানারে ছেয়ে গেছে জনসভা মাঠের বাইরের রাস্তাঘাট। জনসভার ভাষণ শুনতে শহর জুড়ে শতাধিক মাইক বসানো হয়েছে । এছাড়াও নিছিদ্র নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা হয়েছে জনসভাস্থল। ভোটারদের মনজয় করে ভোট পেতে জনসভায় লক্ষাধিক লোকের সমাগম হবে বলে আশা নৌকার প্রার্থী ও সমর্থকদের। ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক আরিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনের জনসভায় ফরিদপুর আসছেন। প্রায় লাখো মানুষের সমাগম হবে এ জনসভায়। ইতোমধ্যে জনসভাকে সফল করতে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও সাধারণ মানুষের মাঝে এনিয়ে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে। যাযাদি/ এস
Published on: 2024-01-02 09:32:26.985845 +0100 CET