যায়যায়দিন
বাংলাদেশের সাথে অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা অংশীদারিত্ব জোরদারের প্রতিশ্রুতি সুনাকের

বাংলাদেশের সাথে অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা অংশীদারিত্ব জোরদারের প্রতিশ্রুতি সুনাকের

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক ঐতিহাসিক পঞ্চম বারের মতো প্রধানমন্ত্রীত্বে আসীন হওয়ায় শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশের এলডিসি থেকে উত্তরণে এবং অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা অংশীদারিত্ব জোরদারে সমর্থন করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাঠানো এক চিঠিতে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী এই প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। সুনাক বলেন, “আপনি একটি ঐতিহাসিক পঞ্চম মেয়াদে যাত্রা শুরু করায় এবং সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আপনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের আকর্ষণীয় উন্নয়ন লাভের প্রতিফলন ঘটায়- আমি আমাদের দু’দেশের মধ্যে ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা অংশীদারিত্ব আরো জোরদার করতে এবং এলডিসি থেকে উত্তরণে বাংলাদেশের প্রতি আমার সমর্থনের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি।” ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, “আমাদের অংশীদারিত্ব দু’দেশের জনগণের মধ্যেকার বন্ধুত্বের শক্তিশালী বন্ধনের এক গভীর ঐতিহাসিক সম্পর্কের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত। আমি আশা করছি, অধিকার এবং স্বাধীনতার অগ্রগতির পাশাপাশি রাজনৈতিক জীবনে সমঝোতার পরিবেশে বাংলাদেশ এগিয়ে যেতে পারে।” তিনি বলেন, “এই মূল্যবোধগুলি কমনওয়েলথ পরিবারের মূল ভিত্তি এবং এগুলো প্রাণবন্ত গণতান্ত্রিক সমাজ তৈরি করে, যা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগকে আকৃষ্ট করে।” সুনাক বলেন, “আমি অভিবাসনের বিষয়ে সহযোগিতাকে আমাদের দ্বিপাক্ষিক এজেন্ডার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসাবে দেখছি। আপনি যুক্তরাজ্যে থাকা অবৈধ বাংলাদেশী নাগরিকদের ফেরত নেয়ার জন্য সদয়ভাবে একটি টেকসই ও সুবিন্যস্ত পথকে সমর্থন করেছেন। আমাদের পারস্পরিক সহযোগিতার বৃহত্তর এজেন্ডার অংশ হিসাবে এই ব্যবস্থা চূড়ান্ত হওয়ার প্রত্যাশা করছি।” তিনি বলেন, “আমাদের দেশের গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে এবং বিকাশকে অব্যাহত রাখতে আমি আপনার সাথে কাজ করার অপেক্ষায় আছি।”বাসস যাযাদি/এসএস
Published on: 2024-02-07 15:32:15.181204 +0100 CET