নয়াদিগন্ত
ঋণের তৃতীয় কিস্তি পেতে শর্ত পূরণে জোর আইএমএফের

ঋণের তৃতীয় কিস্তি পেতে শর্ত পূরণে জোর আইএমএফের

বাংলাদেশ কে ৪৭০ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেওয়ার শর্ত হিসেবে ২০২৪ সালের মার্চে নির্ধারিত বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের ওপর গুরুত্বারোপ করেছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। বুধবার (৩ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠকে বৈশ্বিক ঋণদাতা সংস্থাটি তাদের অবস্থান তুলে ধরে। ঋণের তৃতীয় কিস্তির ৪৭০ কোটি ডলার দেয়ার আগে আর্থিক পরিস্থিতি মূল্যায়নের জন্য বাংলাদেশ সফর করছে আইএমএফ প্রতিনিধি দল। আইএমএফের ঋণের শর্ত অনুযায়ী ২০২৪ সালের মার্চে ১ হাজার ৯২৬ কোটি ডলার রিজার্ভ রাখার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু প্রকৃত রিজার্ভ ১৬ বিলিয়ন ডলারের নিচে ছিল। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা বলেন,‘শর্ত পূরণে আইএমএফ কিছুটা কঠোর হওয়ায় সংস্থাটির ঋণের তৃতীয় কিস্তি নিয়ে জটিলতা ও অনিশ্চয়তা রয়েছে।’ তিনি জানান, রিজার্ভ ঘাটতির কারণ হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তারা বেশ কিছু ধারণা জানিয়েছেন। আইএমএফ শেষ পর্যন্ত এ বিষয়ে বাংলাদেশ ের অবস্থান সম্পর্কে ইতিবাচক হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন তিনি। ডলার সঙ্কট নিরসনে আইএমএফের সাথে ৪৭০ কোটি ডলারের ঋণ চুক্তি করে সরকার। ঋণের তৃতীয় কিস্তি ছাড়ের আগে আইএমএফের একটি পর্যালোচনা মিশন বাংলাদেশ সফর করছে। পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ ের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর ইউএনবিকে বলেন, আইএমএফ নিট রিজার্ভের প্রয়োজনীয়তা সহজ করলেও বাংলাদেশ ের পক্ষে মার্চের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করা কঠিন। তিনি বলেন, বৈশ্বিক ঋণদাতা বাংলাদেশ ের জন্য নিট রিজার্ভের নতুন মান নির্ধারণ করতে পারে বা ৪ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার ঋণের তৃতীয় কিস্তি ছাড় বিলম্বিত করতে পারে। সূত্র : ইউএনবি
Published on: 2024-04-03 18:28:50.470724 +0200 CEST