প্রথম আলো
প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি রোধে এল নতুন যন্ত্র

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি রোধে এল নতুন যন্ত্র

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি প্রতিরোধের লক্ষ্যে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সহায়তায় একটি বিশেষ যন্ত্র উদ্ভাবন করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। ২৯ মার্চের নিয়োগ পরীক্ষায় ‘সুরক্ষা’ নামে এই যন্ত্র পরীক্ষামূলকভাবে পাঁচটি জেলায় ব্যবহার করা হবে। আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহাম্মদ। বুয়েটের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইআইটিসি) এই যন্ত্র উদ্ভাবন করেছে। এ সময় ওই যন্ত্রের কারিগরি দিক তুলে ধরেন এই যন্ত্রের উদ্ভাবনের সঙ্গে জড়িত বুয়েটের অধ্যাপক এস এম লুৎফুল কবির।বর্তমানে চাকরির পরীক্ষার হলে বসে এক শ্রেণির অসাধু চাকরিপ্রার্থী কানে দেওয়া ছোট একটি ডিভাইসের মাধ্যমে জালিয়াতি করে বলে অভিযোগ আছে। কখনো কখনো তা ধরাও পড়ে। নতুন এই যন্ত্র সন্দেহভাজন ব্যক্তির কাছাকাছি নিলে সংকেত (সিগন্যাল) দেবে। যার মাধ্যমে দোষী পরীক্ষার্থীকে চিহ্নিত করা যাবে। তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহাম্মদ বলেন, এ বিষয়ে এখনই শতভাগ সফলতা আসেনি। প্রাথমিক সফলতা এসেছে। এবার পাঁচটি জেলায় নিয়োগ পরীক্ষায় পরীক্ষামূলকভাবে এই যন্ত্র ব্যবহার করা হবে। এই যন্ত্র উদ্ভাবনের জন্য বুয়েটের আইআইটিসিকে পাঁচ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে। তাঁরা আশা করছেন, এ বিষয়ে শতভাগ সফলতা আসবে।২৯ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে তৃতীয় ধাপে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা। এই ধাপে শূন্য পদের সংখ্যা ৬ হাজার ২০১। এর বিপরীতে আবেদন করেছেন ৩ লাখ ৪৯ হাজার ২৯৩ জন। সচিব ফরিদ আহাম্মদ বলেন, সব মিলিয়ে এ বছর মোট ১৩ হাজার ৭৮১ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।
Published on: 2024-03-21 12:26:24.732165 +0100 CET