প্রথম আলো
পোস্তগোলা সেতু খুলেছে, দিনভর থেমে থেমে চলছে যানবাহন

পোস্তগোলা সেতু খুলেছে, দিনভর থেমে থেমে চলছে যানবাহন

বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতুতে (পোস্তগোলা সেতু) সংস্কারকাজ শেষ হওয়ায় আজ শনিবার ভোর থেকে সেতু দিয়ে সব ধরনের যানবাহন চলাচল শুরু হয়েছে। তবে বেশি চাপের কারণে থেমে থেমে যানবাহন চলাচল করছে।অপর দিকে আজ সকাল থেকে বুড়িগঙ্গা দ্বিতীয় (বাবুবাজার) সেতুতে যানবাহনের চাপ কমে গেছে। এতে ওই সেতুর দক্ষিণ প্রান্ত কেরানীগঞ্জের প্রবেশমুখে কদমতলী এলাকার যানজট কমেছে।আজ দুপুরের দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের হাসনাবাদ এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পোস্তগোলা সেতুতে ওঠার পথে সব ধরনের যানবাহনের জটলা লেগে আছে। পাঁচ-সাত মিনিট পরপর থেমে যান চলাচল করছে। তবে বাবুবাজার সেতুতে ওঠার পথে কেরানীগঞ্জের কদমতলী এলাকায় যানজট তেমন নেই। কদমতলী ও বাবুবাজার সেতু দিয়ে স্বাভাবিকভাবে যান চলাচল করছে।> > গত ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত পোস্তগোলা সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচল > নিয়ন্ত্রণ ছিল। আজ ভোর থেকে সেতুতে সব ধরনের যানবাহন চলাচলের অনুমতি দেওয়া > হয়েছে।বরিশাল থেকে আসা ইমাদ পরিবহনের চালক সোহরাব মিয়া বলেন, ‘আজ ভোর থেকেই পোস্তগোলা সেতুতে যান চলাচল শুরু হলে সেতুর প্রবেশমুখে কেরানীগঞ্জের হাসনাবাদ এলাকায় কিছুটা যানজটে পড়তে হচ্ছে। এরপরও সহজেই ঢাকায় আসতে পেরেছি।’মাদারীপুর থেকে আসা সার্বিক পরিবহনের চালক ইমতিয়াজ মিয়া বলেন, ‘কয়েক দিন ঢাকায় প্রবেশ করতে গিয়ে অনেক যানজটে পড়তে হয়েছে। অনেক সময় নষ্ট হয়েছে। আজ পোস্তগোলা সেতু খুলে দেওয়ায় খুব কম সময়ে যেতে পারছি। আর যানজটেও পড়তে হয় নাই।’যশোর থেকে আসা হানিফ পরিবহনের চালক ইমন শেখ বলেন, ‘পোস্তগোলা সেতুতে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় আমরা অনেক পথ ঘুরে বাবুবাজার সেতু দিয়ে চলাচল করেছি। তবে যানজট ঠেলে ঠেলে অনেক সময় নষ্ট করে চলাচল করতে হয়েছে। আজ ভোর থেকে আমাদের যানজট ঠেলে পুরান ঢাকা দিয়ে বাবুবাজার সেতু হয়ে আর চলাচল করতে হচ্ছে না।ঢাকা জেলার দক্ষিণ কার্যালয়ের ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক জাকির হোসেন বলেন, আজ ভোর থেকে পোস্তগোলা সেতু খুলে দেওয়ায় কেরানীগঞ্জে যানজট কমে গেছে। বাবুবাজার ও পোস্তগোলা সেতু দিয়ে স্বাভাবিকভাবে যান চলাচল করছে। তবে কেরানীগঞ্জ এলাকায় যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা তৎপর রয়েছে।সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তরের কেরানীগঞ্জ সড়ক সার্কেলের উপসহকারী প্রকৌশলী চৌধুরী সাজ্জাদ আরেফিন বলেন, পোস্তগোলা সেতুতে দুটি গার্ডারের সংস্কারকাজ চলার কারণে গত ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত এই সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ ছিল। এর মধ্যে বেশ কয়েক দিন সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ ছিল। গতকাল শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে সেতুর সংস্কারকাজ শেষ হয়। আজ ভোর থেকে সেতুতে সব ধরনের যানবাহন চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এতে সেতুতে সব ধরনের যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
Published on: 2024-03-09 12:42:41.675898 +0100 CET