The Business Standard বাংলা
কাকরাইলে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, টহল দিচ্ছে বিজিবি

কাকরাইলে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, টহল দিচ্ছে বিজিবি

কাকরাইলে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ চলছে। কয়েকদফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর কাকরাইল মোড় খালি করতে কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে পুলিশ। বিজিবির কয়েকটি গাড়িকেও সেখানে টহল দিতে দেখা গেছে। প্রথমে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর কাকরাইল মোড়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ সংঘর্ষে বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মগবাজারের দিক থেকে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা পিকআপে গুলিস্তানের দিকে যাচ্ছিলেন। কিন্তু কাকরাইল থেকে আরামবাগ মোড় পর্যন্ত রাস্তাটিতে আগে থেকেই বিএনপির নেতা-কর্মীরা অবস্থান করছিলেন। ফলে পিকআপটি গুলিস্তানের দিকে যেতে পারেনি। এ সময়ই আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। দুই পক্ষের অনেকের হাতে লাঠিসোঁটা দেখা যায়। বেশ কয়েকটি গাড়িও ভাঙচুর করা হয়। এসময় গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীরের গাড়িবহরেও হামলা হয়। পরে পুলিশ ছত্রভঙ্গ করতে চাইলে উল্টো দিক থেকে ইটপাটকেল ছুড়ে মারতে থাকে বিএনপি নেতাকর্মীরা। অনেকে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে ঢুকে পড়ে এবং সড়কে, পুলিশ বক্সে ও অডিট ভবনে অগ্নি সংযোগ করে। পুলিশ জলকামান দিয়ে আগুন নেভায় এবং কাঁদানে গ্যাস ও সাউন্ড ছুড়ে মারে। ইতোমধ্যে কাকরাইল মোড়ে পুলিশে অত্যাধুনিক সব সাজোঁয়া যান নিয়ে আসা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে রমনা পুলিশ জোনের সহকারী কমিশনার মুহাম্মদ সালমান ফারসি টিবিএসকে বলেন, বারবার অনুরোধ করার পরও বিএনপির লোকজন কাকরাইল মসজিদ মোড় খালি করেনি। তারা দুর্ব্যবহার করেছে, পুলিশের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়েছে পরে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে। আমাদের প্রতিক্রিয়া দেখাতেই হতো।
Published on: 2023-10-28 10:43:04.323289 +0200 CEST