The Business Standard বাংলা
তফসিল ঘোষণাকে ঘিরে নাশকতা ঠেকাতে বিভিন্ন জেলায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন

তফসিল ঘোষণাকে ঘিরে নাশকতা ঠেকাতে বিভিন্ন জেলায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে যেকোনো ধরনের নাশকতা এড়াতে দেশের বিভিন্ন জেলায় সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলো। মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক পুলিশ। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল আজ বুধবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারে সরাসরি ভাষণের মাধ্যমে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবেন বলে কমিশনের সচিব জাহাঙ্গীর আলম এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন। এর আগে রেকর্ড করা ভাষণ প্রচার করা হলেও এবারই প্রথম সরাসরি ভাষণের মাধ্যমে তফসিল ঘোষণা করবে কমিশন। তফসিল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে কয়েকটি জেলায় রাস্তায় পুলিশের উপস্থিতি বাড়ানো হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাঁচ শতাধিক, রাজশাহীতে আড়াই হাজার, এবং মৌলভীবাজারে ৪০০ পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। বুধবার বিকেল থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রধান সড়কগুলোতে টহল দেওয়ার পাশাপাশি শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতেও পুলিশ সদস্যদের সতর্ক অবস্থান নিতে দেখা যায়। এছাড়া বিএনপি–জামায়াতের অবরোধ কর্মসূচি ঘিরে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আগে থেকেই জেলায় তিন প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন আছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাখাওয়াত হোসেন বলেন, 'নির্বাচনের তফসিলপরবর্তী নাশকতার আশঙ্কায় পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে। পুরো জেলায় পাঁচ শতাধিক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।' পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে আছে জানিয়ে তিনি বলেন, কাউকেই বিশৃঙ্খলা করতে দেওয়া হবে না। বিজিবির ২৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সৈয়দ আরমান আরিফ জানান, 'তফসিল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে বিজিবি সদস্যদের টহল কার্যক্রম আরও জোরদার করা হয়েছে।' রাজশাহীতে যেকোনো ধরনের নাশকতা ও সহিংসতা ঠেকাতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে রাজশাহী মহানগর ও জেলা পুলিশ। রাজশাহী মহানগরে এক হাজার ও জেলায় দেড় হাজার পুলিশ সদস্য কাজ করছেন। মৌলভীবাজারের প্রতিটি উপজেলায় মোড়ে মোড়ে পুলিশের সতর্ক অবস্থানের পাশাপাশি শহরে টহল দিচ্ছে র‍্যাব ৯। পুলিশ সুপার মনজুর রহমান জানান, জেলায় ৪০০ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সিলেট মহানগর পুলিশ (এসএমপি) কমিশনার মো. ইলিয়াছ শরীফ বলেন, 'সিলেটে কোনো বিশৃঙ্খলা হবে বলে মনে করছি না আমরা। তবু পুলিশ সতর্ক রয়েছে, সব ধরনের নাশকতা ঠেকাতে প্রস্তুত রয়েছে।' সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মহানগরের প্রতিটি মোড় এবং গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়েছে। বিভিন্ন সড়কে রয়েছে র‍্যাব-৯-এর 'রোবাস্ট পেট্রোল' টিম। অবশ্য বেশ কয়েকটি জেলায় তফসিল ঘোষণা নিয়ে আলাদাভাবে কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। খুলনা, কুমিল্লা, লক্ষ্মীপুরে নিরাপত্তা প্রস্তুতির পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড -এর সংবাদদাতারা। তবে এসব জেলাগুলোতেও আগের চেয়ে বাড়তি সতর্ক অবস্থায় রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। বেশ কিছুদিন ধরেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। তফসিল ঘোষণার পর বিএনপি–জামায়াতসহ সমমনা দলগুলো সরকার বিরোধী আন্দোলনের মাত্রা বাড়িয়ে দেবে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। আগামী ৬ থেকে ৯ জানুয়ারির মধ্যে অনুষ্ঠিত হতে পারে জাতীয় নির্বাচন। এর আগে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দুই দলই তাদের অবস্থানে অনড় থাকায় রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনের কোনো সম্ভাবনাও দেখা যাচ্ছে না। গত ২৮ অক্টোবর থেকে বিএনপির লাগাতার অবরোধ ও একইসঙ্গে আওয়ামী লীগের কর্মসূচিতে পুরো দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে। এ কয়দিনের টানা সহিংসতায় ভাঙচুর করা হয়, পোড়ানো হয় যানবাহন। এছাড়া সহিংসতায় একজন পুলিশ কনস্টেবলসহ দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এমনকি প্রধান বিচারপতির বাসভবনেও হামলা হয়। ইতোমধ্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস এবং যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ দলটির আরও অনেক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রতিবেদনটি তৈরিতে তথ্য দিয়ে সহায়তা করেছেন দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড -এর জেলা প্রতিনিধিরা।
Published on: 2023-11-15 14:05:03.121384 +0100 CET