The Business Standard বাংলা
৫৭১ প্রার্থীর সম্পদমূল্য অন্তত এক কোটি টাকা: টিআইবি

৫৭১ প্রার্থীর সম্পদমূল্য অন্তত এক কোটি টাকা: টিআইবি

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে নির্বাচন কমিশনে দেওয়া হলফনামায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা অন্তত এক কোটি টাকার স্থাবর সম্পত্তি থাকার ঘোষণা দিয়েছেন। এদের মধ্যে ১৮ প্রার্থীর সম্পদমূল্য শত কোটি টাকা বা তাঁর চেয়ে বেশি বলে জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। সংস্থাটি হলফনামা বিশ্লেষণের মাধ্যমে এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানায়, নির্বাচন কমিশনে দেওয়া ২,০০০ এর বেশি হলফনামার তথ্য বিশ্লেষণ করে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিবেদনের তথ্য উপস্থাপন করেন টিআইবির সমন্বয়ক (আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন) মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম। টিআইবি জানায়, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বিগত নির্বাচনগুলোর চেয়ে কোটিপতি প্রার্থীদের (অস্থাবর সম্পদের ভিত্তিতে) সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে কোটিপতি প্রার্থী ছিলেন ২৭৪ জন, ২০১৪ সালে ২০২ জন এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনে ৫৫২ জন। টিআইবি জানায়, ২১.২০ শতাংশ প্রার্থীর সম্পদমূল্য এক কোটি থেকে ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত। ৪.৬২ শতাংশের সম্পদমূল্য ১০ কোটি থেকে ৫০ কোটি টাকার মধ্যে। আর ১.০৭ শতাংশের সম্পদমূল্য ৫০ থেকে ১০০ কোটি টাকার মধ্যে। এছাড়া, ১.০৭ শতাংশের সম্পদমূল্য শত কোটি টাকার বেশি। অস্থাবর সম্পদের হিসাবে এবার ৭২.০৯ শতাংশ প্রার্থীর সম্পদমূল্য এক কোটি টাকার কম। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী কোটিপতি প্রার্থীদের অধিকাংশই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের। তাঁদের সংখ্যা ২৩৫ জন। এরপরেই রয়েছেন স্বতন্ত্ররা। তাঁদের সংখ্যা ১৬৩ জন। সে তুলনায়, জাতীয় পার্টির ৪৭ জন, জাতীয় পার্টি (জেপি)-র ১৭ জন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের ৭ জন, তৃণমূল বিএনপির ৬ জন এবং বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির ৫ প্রার্থী কোটিপতি।
Published on: 2023-12-26 14:45:03.272617 +0100 CET