The Business Standard বাংলা
কেন আপনার কখনই অবসর নেওয়া উচিত নয়?

কেন আপনার কখনই অবসর নেওয়া উচিত নয়?

১৯৯০-এর দশকে প্রচারিত একটি জনপ্রিয় টেলিভিশন সিরিজ 'দ্য সোপ্রানোস'-এর একটি পর্বে একজন গ্যাংস্টার টিট্যুলার পরিবারের টনিকে বলেছিলেন, তিনি অবসর নিতে চান। জবাবে টনি ব্যঙ্গ করে বলেছিল, "তুমি কি একজন হকি খেলোয়াড়?" কিছু মানুষ সহজে হাল ছেড়ে দেয় না। ৮৯ বছর বয়সে জর্জিও আরমানি তার ফ্যাশন হাউসের প্রধান নির্বাহী হিসেবে পদত্যাগ করতে অস্বীকার করেছেন। ইতালির দ্বিতীয় ধনী ব্যক্তি হওয়া সত্ত্বেও তার কাজের নীতি কমে যায়নি। চার্লি মুঙ্গার যিনি বার্কশায়ার হ্যাথওয়েতে ওয়ারেন বাফেটের সহকারী ছিলেন, ৯৯ বছর বয়সে গত বছরের শেষের দিকে মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত ইনভেস্টমেন্ট পাওয়ার হাউসের জন্য কাজ করেছিলেন। বাফেট নিজেই ৯৩ বছর বয়সে ক্ষমতাধর হয়ে উঠেছেন। আরমানি, বাফেট বা মুঙ্গেরের মতো লোকেরা ব্যতিক্রমী। এই বছরের একটি জরিপে দেখা গেছে, প্রায় তিনজনের একজন আমেরিকান বলেছেন যে, তারা কখনই অবসর নেবেন না। বেশির ভাগই বলেছে, তারা একটি পূর্ণ সময়ের চাকরি ছেড়ে দেওয়ার সামর্থ্য রাখে না। বিশেষ করে যখন মুদ্রাস্ফীতি ইতোমধ্যেই সামান্য সামাজিক নিরাপত্তা চেককেও গিলে খাচ্ছে। কিন্তু ধরুন আপনি সেই সৌভাগ্যবান ব্যক্তিদের মধ্যে একজন যারা অবসর বেছে নিতে পারেন। আপনার কি সেটা করা উচিত? কর্পোরেট জীবনের চাপ অনুমানযোগ্য। আপনি কর্মজীবনের সিঁড়িতে উঠে এসেছেন, প্রতিটি ধাপে আরও প্রতিপত্তি এবং বড় বেতন অর্জন করছেন। তারপরও আপনার ষাটের দশকের শুরুর দিকের একটি শুক্রবার বিকালে অবসরের সুযোগ ছিল। আপনি যদি অবসরে মোটামুটি অস্থির হয়ে ওঠেন তাহলে আপনি কল ব্রিজ খেলতে পারেন বা নাতি-নাতনিদের সাহায্য করতে পারেন। আর অস্থিরতা না কাজ করলে পত্রিকা, টিভি এবং কম্বল তো আছেই। প্রযুক্তি সেক্টরের অনেক পেশাদার ব্যক্তি তরুণ প্রজন্মের জন্য জায়গা ছেড়ে দিয়ে প্রস্তাবিত সময়ে অবসর নেয়। এই ক্ষেত্রে তাদের অবস্থান বজায় রাখা অবাস্তব হয়ে পড়ে। তবু পদত্যাগ করার অর্থ হল নিজের জায়গা ছেড়ে দেওয়া। অবসর আপনাকে অনেক সময় দেয়। কিন্তু আপনার আর ব্যস্ততা না থাকায় আপনাকে কোণঠাসা করে ফেলে। সবকিছুতেই পরিবর্তন এসেছে। মানুষের আয়ু দীর্ঘ হচ্ছে। এটা সত্য, অবসর পরবর্তী বছরগুলি দীর্ঘ হচ্ছে। কিন্তু এটা তাদের একঘেয়েমি বা অর্থহীন জীবনের দিকে নিয়ে যাবেনা। আপনি একজন আইনজীবী হিসাবে ৩২ বছর পর অবসর নেওয়ার পরে আপনি ফটোগ্রাফি অথবা অন্য কোন কিছুতে সময় দেওয়া শুরু করতে পারেন। এতে আপনাকে কাজ ছাড়া থাকতে হবে না অথবা উদ্দেশ্যের অভাবে ভুগতে হবে না। আপনি যদি আর হাসপাতালের প্রধান না হন, আপনি মাঝে মধ্যে হাসপাতাল বা চিকিৎসাসেবার কাজে যোগ দিতে পারেন। অথবা আপনার স্থানীয় ক্লিনিকে শিক্ষা দিতে বা সাহায্য করতে পারেন। নিজেকে মূল্যায়ন করা এবং ব্যক্তিগত প্রবৃদ্ধি অনেক জায়গা থেকে লাভ করা যেতে পারে। যার মধ্যে অলাভজনক কাজ অথবা অন্যদেরকে নতুন ব্যবসা শুরু করার বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া আরও লাভজনক হতে পারে। আপনি একটি পকেট ডায়েরি রাখতে পারেন। তাছাড়া থিয়েটার, শিল্প প্রদর্শনী এবং ব্যাডমিন্টন খেলার প্র্যাকটিস করেও বিকাশ লাভ করতে পারেন। সব শখই ভালো এবং অনেকের জন্যই ভালো। কিন্তু যারা একটু বেশিই যান্ত্রিক জীবনে অভ্যস্ত তারা এগুলোকে অর্থহীন এবং এমনকি সামান্য বিব্রতকরও মনে করতে পারে। যখনই আরমানিকে অবসর নিতে বলা হয় এবং তার শ্রমের ফল ভোগ করতে বলা হয় তিনি উত্তর দেন, "একদম না।" এর পরিবর্তে তিনি প্রতিদিন ব্যবসা পরিচালনার সাথে জড়িত থাকতে চান।
Published on: 2024-01-27 13:54:45.571068 +0100 CET