The Business Standard বাংলা
শিশুশ্রম জরিপ: ৫ ঝুঁকিপূর্ণ খাতে শ্রমজীবী শিশু ৩৮ হাজার

শিশুশ্রম জরিপ: ৫ ঝুঁকিপূর্ণ খাতে শ্রমজীবী শিশু ৩৮ হাজার

দেশের ৫ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুরা বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ খাতে কাজ করছে। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান বুরো (বিবিএস) বলছে, পাঁচ খাতে ৩৮ হাজার ৮ জন শিশু কাজ করছে, যার ৯৭ দশমিক ৫ শতাংশই ছেলেশিশু। সবচেয়ে বেশি শিশু কাজ করে অটোমোবাইল ওয়ার্কশপে। বৃহস্পতিবার সংস্থাটির প্রকাশিত খাতভিত্তিক প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত শিশুশ্রম জরিপ ২০২৩'- এ এসব তথ্য উঠে এসেছে। বিবিএস বলছে, বাংলাদেশ সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে ৪৩টি খাতকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। বিভিন্ন অংশীজনের সঙ্গে আলোচনা করে, বিবিএস সরকার ঘোষিত এই ঝুঁকিপূর্ণ তালিকা থেকে খাতভিত্তিক প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত শিশুশ্রম জরিপ-২০২৩' পরিচালনার জন্য পাঁচটি খাত নির্বাচন করেছে। এই খাতগুলোকে কেন্দ্র করে শিশুশ্রম বিরাজমান রয়েছে এবং জরুরি হস্তক্ষেপ প্রয়োজন সে লক্ষ্যকে সামনে রেখেই এ জরিপটি পরিচালনা করা হয়েছে। এই খাতগুলো হচ্ছে: ১) মাছ, কাঁকড়া, শামুক/ঝিনুক সংক্ষরণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণ (শুটকি মাছ উৎপাদন), ২) পাদুকা উৎপাদন (চামড়ার তৈরী পাদুকা শিল্প), ৩) লোহা ও ইস্পাত ঢালাই (ওয়েল্ডিং বা গ্যাস বার্নার মেকানিকের কাজ), ৪) মোটর যানবাহনের রক্ষণাবেক্ষণ ও মেরামত (অটোমোবাইল ওয়ার্কশপ) এবং ৫) ব্যক্তিগত এবং গৃহস্থালি সামগ্রীর মেরামত (অনানুষ্ঠানিক এবং স্থানীয় টেইলারিং এবং পোশাক সেক্টর)। জরিপের প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী, ৪০ হাজার ৫২৫টি প্রতিষ্ঠান এবং ৩৮ হাজার ৮ জন ৫-১৭ বছর বয়সী শিশু উপরোক্ত খাতসমূহে কর্মরত আছে। ঝুঁকিপূর্ণ খাতে কাজে নিয়োজিত শিশুদের মধ্যে ৯৭ দশমিক ৫ শতাংশ ছেলে এবং ২ দশমিক ৫ শতাংশ মেয়ে শিশু। এই পাঁচ খাতে শ্রমজীবী মোট শিশুর সংখ্যা হলো যথাক্রমে– শুটকি মাছ উৎপাদনে ৮৯৮ জন, চামড়ার তৈরী পাদুকা তৈরিতে ৫ হাজার ২৮১ জন, ওয়েল্ডিং বা গ্যাস বার্নার ম্যাকানিকের কাজে ৪ হাজার ৯৯ জন, অটোমোবাইল ওয়ার্কশপে ২৪ হাজার ৯২৩ এবং অনানুষ্ঠানিক ও স্থানীয় টেইলারিং বা পোশাক খাতে ২ হাজার ৮০৫ জন। এ থেকে স্পষ্ট যে, পাঁচটি ঝুঁকিপূর্ণ খাতের মধ্যে শ্রমজীবী শিশুদের সবচেয়ে বড় অংশ নিয়োজিত রয়েছে অটোমোবাইল খাতে। এই খাতে কর্মরত শিশুর ৩৫ দশমিক ৭ শতাংশ গ্রাম এবং ৬৪ দশমিক ৩ শতাংশ শহর এলাকায় বসবাস করে। বিবিএস আরও জানায়, এ জরিপের মাধ্যমে শ্রমজীবী শিশু ঝুঁকিপূর্ণ খাতসমূহে কাজ করার সময় কি কি ধরনের বিপজ্জনক কাজ করতে পারে তা চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে। আনুমানিক ১৯.১ শতাংশ ছেলে এবং ৭.৭ শতাংশ মেয়ে শিশু ভারী বোঝা বহন, মালামাল টানার কাজ করে, অধিক উপরে বা ফ্লোর/ তলা হতে অতি উচ্চতায় উঠে কাজ করে প্রায় ৮ দশমিক ১% ছেলে এবং শূন্য দশমিক ৩ শতাংশ মেয়ে শিশু। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও)-র সহযোগিতায় বিবিএস বাংলাদেশে তার নিজস্ব প্যাটার্নে এই জরিপ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। এ জরিপে পাঁচটি (০৫) ঝুঁকিপূর্ণ খাতে নিযুক্ত ৫ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের একটি জাতীয় প্রাক্কলন মূল্যায়ন করা হয়েছে। জরিপের তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম ২০২২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মে ২০২৩ পর্যন্ত পরিচালিত হয়। এ জরিপটি নির্বাচিত পাঁচটি সেক্টরে নিয়োজিত শিশুদের কাজের প্রকৃতি এবং শিশুদের সাধারণ বৈশিষ্ট্যসমূহ তুলে ধরা হয়েছে।
Published on: 2024-03-14 12:24:39.211148 +0100 CET