The Business Standard বাংলা
আধুনিক প্রযুক্তিগত জ্ঞানসম্পন্ন সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী

আধুনিক প্রযুক্তিগত জ্ঞানসম্পন্ন সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আধুনিক প্রযুক্তিগত জ্ঞানসম্পন্ন সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তোলার পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে সরকার। আজ শনিবার (৩ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহী সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টের (বিআইআর) তৃতীয় পুনর্মিলনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে এ কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, `সরকার চায় দেশের যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় সক্ষম সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে। সেই লক্ষ্যে আমরা বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছি।' তিনি উল্লেখ করেন, যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও অন্যান্য প্রয়োজনে দেশের জনগণের পাশে থেকে সশস্ত্র বাহিনী দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নেও কাজ করে যাচ্ছে। এভাবে সশস্ত্র বাহিনী দেশের উন্নয়নে অবদান রাখছে। শেখ হাসিনা বলেন, 'আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলা। আমি বিশ্বাস করি- আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সক্ষম হব।' বক্তব্যের একপর্যায়ে সশস্ত্র বাহিনীর উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও তুলে ধরেন তিনি। সরকার প্রধান বলেন, 'জাতির পিতার সুদূরপ্রসারী প্রতিরক্ষা নীতির আলোকে আমরা 'ফোর্সেস গোল ২০৩০' প্রণয়ন করেছি এবং সশস্ত্র বাহিনী ক্রমাগত উন্নত হচ্ছে।' ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টকে রেজিমেন্টাল কালার প্রদান করেন এবং ২০১১ সালে মর্যাদাপূর্ণ জাতীয় পতাকা প্রদান করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'বর্তমানে রেজিমেন্টে দুটি প্যারা কমান্ডো ব্যাটালিয়নসহ মোট ৪৬টি ইউনিট রয়েছে। এই ইউনিটের সদস্যরা দেশ ও দেশের বাইরে দক্ষতা, সুনাম ও দেশপ্রেমের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন। এই কষ্টার্জিত সুনাম বজায় রাখতে আপনারা নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করবেন এটাই আমার প্রত্যাশা।' অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনীর একটি দল শেখ হাসিনাকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। তিনি সালাম গ্রহণ করেন এবং একটি খোলা জিপে চড়ে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন।
Published on: 2024-03-02 10:22:11.868735 +0100 CET